অসৎ উদ্দেশ্যে মহিলা মেম্বারকে পরিষদের হল রুমে তালাবদ্ধ করার অভিযোগ

36

নরসিংদী প্রতিনিধিঃ খালেদা আক্তার নামে এক ইউপি মেম্বারকে ডেকে নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদের হল রোমের ভিতর তালা বদ্ধ করে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনাটি ঘটেছে মনোহরদী উপজেলার বড়চাপা ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে।

গত সোমবার মহিলা মেম্বার খালেদা আক্তার এই মর্মে একটি লিখিত মনোহরদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট দাখিল করেছেন। নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ শহিদুল্লাহ আসামীকে ধরে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মনোহরদী থানার  ওসিকে অনুরোধ জানিয়েছেন। ঘটনার বিবরণ থেকে জানা গেছে, গত সোমবার বড়চাপা ইউনিয়নের ৪,৫ ও ৬ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা আসনের মেম্বার মোসা: খালেদা আক্তার ইউনিয়ন পরিষদে গেলে একই ইউনিয়নের পাইকান গ্রামের ছামুর পুত্র আলা উদ্দিন জরুরী কথা আছে বলে তাকে ডেকে পরিষদের হল রুমের ভিতর নিয়ে যায়।

সেখানে নিয়ে মেম্বার খালেদা আক্তারকে ভিতরে রেখে আলা উদ্দিন বাইরে থেকে রুমে তালা বদ্ধ করে দেয়। এ সময় খালেদা আক্তার অবস্থা টের পেয়ে ভিতর থেকে চিৎকার করতে করতে এক পর্যায়ে অজ্ঞান হয়ে যায়। পরে মেম্বার খালেদার ডাক চিৎকার শুনে পরিষদের ঝাড়–দার নজরুল ইসলাম ও গ্রাম পুলিশ চ›দ্রু হল রুমের তালা ভেঙ্গে  মেম্বার খালেদাকে উদ্ধার করে। এ ঘটনার সাথে সাথে মেম্বার খালেদা ঘটনাটি মোবাইল ফোনে ইউপি চেয়ারম্যানকে জানান।

ইউপি চেয়ারম্যান দেখতেছি বলে লাইন কেটে দেন। এরপর তিনি আর মোবাইল ফোন রিসিভ করেননি এবং এ ব্যাপারে কোন পদক্ষেপও গ্রহণ করেননি। এমনকি ফোন করে ঘটনার বিস্তারিত জানতেও চাননি। মেম্বার খালেদা তার অভিযোগ পত্রে বলেন, আমার সম্মানহানী করার জন্য উদ্দেশ্যমূলকভাবে আমাকে হলরুমের ভিতরে নেয়া হয়েছিল। আমি বিচার না পেয়ে নিরুপায় হয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শরণাপন্ন হয়েছি।