ইসির নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় স্মার্টকার্ড ছাপানো শুরু

42

বিডিসংবাদ ডেস্কঃ কমিশনের নিজস্ব জনবল দিয়ে রবিবার থেকে স্মার্টকার্ড ছাপানোর কাজ শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনের (ইসি) ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। তিনি বলেন, এখন থেকে ফ্রান্সের কোম্পানি অবার্থুর টেকনোলজিস বা অন্যকোনো কোম্পানির সাথে আমাদের কোনো সর্ম্পক নেই। গতকাল রবিবার আগারগাঁওস্থ নির্বাচন ভবনে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান তিনি।

ইসির ভারপ্রাপ্ত সচিব বলেন, স্মার্টকার্ড বিরতণের জন্য চোখের আইরিশ এবং দশ আঙ্গুলের ছাপ নেওয়ার জন্য মেশিন ক্রয়ের অনুমোদন দিয়েছে কমিশন। এ ক্ষেত্রে প্রত্যেকটি উপজেলার জন্য একটি করে আইরিশ এবং একটি করে ফিঙ্গার প্রিন্ট মেশিন কেনার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন স্মার্টকার্ড প্রিন্টের কাজ নিজেই করছে এবং রবিবার থেকেই এটার কাজ শুরু হয়েছে। স্মার্টকার্ড প্রিন্টের জন্য বর্তমানে আমাদের যে দশটি মেশিন আছে, সেগুলো দিয়ে আমাদের নিজস্ব জনবল দিয়ে প্রিন্টের কাজ শুরু হয়েছে।

ব্ল্যাঙ্ক কার্ড কোথা থেকে আমদানি করা হবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বর্তমানে আমাদের কাছে ৭ কোটি ৭৫ লাখ ব্লাঙ্ক কার্ড আছে। সেগুলো দিয়েই পারসোনালাইজেশন করেই আমরা প্রিন্টের কাজ আপাতত চালিয়ে যাবো।

ফ্রান্সের কোম্পানি অবার্থুর টেকনোলোজিসের বিষয়ে তিনি বলেন, গত জুনের ৩০ তারিখে তাদের সাথে চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। নির্বাচন কমিশন তাদের সাথে এ চুক্তি আর নবায়ন করেনি। তাদের সাথে আমাদের টাকা পয়সার যে লেনদেন আছে, আইনী যে বিষয়গুলো আছে, সেগুলো একজন আইনজীবীকে দিয়ে যাচাই-বাছাই করে পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

আইডিয়া প্রকল্পের বিষয়ে ইসি সচিব বলেন, বিশ্বব্যাংকের সাথে আমরা ফান্ডের বিষয়ে শিগগিরই বসবো। আশা করি তারা আমাদের সাথে কন্টিনিউ করবে। বিশ্বব্যাংকের অর্থায়ন এখনো অব্যাহত আছে। ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত চুক্তি আছে। পরবর্তী অর্থায়নের জন্য আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাবো।

একদিনের বেতন প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে বন্যার্তদের সহায়তায় ইসি সচিবালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের একদিনের বেতন প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। গতকাল প্রধান নির্বাচন কমিনশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এ সময়ে চারজন নির্বাচন কমিশনার, ইসির ভারপ্রাপ্ত সচিব, অতিরিক্ত সচিবসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।