কক্সবাজার শহরে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ১১জন ছিনতাইকারীসহ আটক ১৪

11

কক্সবাজার প্রতিনিধিঃ কক্সবাজার শহরে ডাকাতির প্রস্তুতি কালে ১১ সশস্ত্র ছিনতাইকারী সহ ১৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার ভোর রাত ৪ টার দিকে কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশ এ অভিযান চালায়। আটককৃতদের কাছ থেকে ৮টি ছোরা, ৮টি মুখোশ ও ৫টি লোহার রড উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, ২৬ ডিসেম্বর ভোর রাত পৌণে ৪ টার সময় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে একদল ডাকাত শহরে বড় ধরনের ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কক্সবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রনজিত কুমার বড়–য়ার নেতৃত্বে ইন্সপেক্টর (তদন্ত) কামরুল আজম, ইন্সপেক্টর মাইন উদ্দিন (অপারেশন) এসআই মোঃ খালেদ, এসআই দীপক কুমার সিংহ, এএসআই রাজীব বৈরাগী, এএসআই ফরহাদ হোসেন ও সঙ্গীয়  অফিসার ফোর্স কক্সবাজার পৌরসভার কবিতা চত্ত্বরের পূর্ব পাশে ঝাউবাগানে অভিযান চালায়। এসময় ডাকাতি প্রস্তুতি কালে আটক করা হয় সশস্ত্র ১১ জন ছিনতাইকারীকে।

আটককৃতরা হচ্ছে, কক্সবাজার সদরের ঝিলংজা ইউনিয়নের পশ্চিম লারপাড়া এলাকার মীর কাশেমের ছেলে মোঃ রুবেল (২০), পশ্চিম গোমাতলী এলাকার মৃত শহর মল্লুক এর ছেলে মোঃ কাছিম (৩৫), বাদশার ঘোনার এলাকার আইয়ুব আলীর ছেলে মোঃ শাহিন (২০), বৈল্যাপাড়া এলাকার মৃত আবু বক্কর এর ছেলে আবু তাহের (২৮), নুর পাড়া এন্ডারসন রোড এলাকার মৃত আমির হোসেন এর ছেলে রাফসান হোসেন প্রঃ মিন্টু (৩১), মোহাজের পাড়া এলাকার নুর মোহাম্মদ এর ছেলে তুষার আহম্মদ মাওন (২৩) এবং আব্দুল কাদের এর ছেলে ফজলে করিম (২৭), দক্ষিন বাহারছড়া এলাকার মৃত ফরিদ এর ছেলে নুরুল আবছার (২০), ঝিলংজা পশ্চিম গোমাতলীর নুরুল আজিম প্রঃ হাসান আলীর ছেলে মোবারক আলী (২০), দক্ষিন রুমালিয়ারছড়া বাচা মিয়ার ঘোনা এলাকার নুরুল আলমের ছেলে রায়হান (২০) এবং মৃত আলী আকবর এর ছেলে আলাউদ্দিন (২০)। ধৃত ডাকাতদের কাছ থেকে ৮টি ছোরা, ৮টি মুখোশ ও ৫টি লোহার রড উদ্ধার করা হয়।

এছাড়াও শহরের কুখ্যাত মোটর সাইকেল চোর সিন্ডিকেটের সদস্য ঝিলংজা সাবমেরিন ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশনের পেছন এলাকার মোঃ আলী জোহারের ছেলে কথিত সংবাদকর্মী নবাব শরীফ ও বাদশাকে পুলিশ আটক করে। পৃথক অভিযানে সাজা প্রাপ্ত নুরুল আমীনকে সদরের খুরুশকুল মেহেদী পাড়া এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রনজিত কুমার বড়–য়া জানান, আটক ছিনতাইকারীদের বিরুদ্ধে ডাকাতি, ছিনতাই, দস্যুতার অভিযোগে একাধিক মামলা রয়েছে। তিনি আরো জানান, ধৃতদের বিরুদ্ধে আলাদাভাবে ডাকাতি প্রস্তুতি এবং অস্ত্র মামলা রুজু করতঃ রিমান্ডের প্রতিবেদন সহ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

ওসি আরো জানান, কক্সবাজার শহর ও শহরতলীর পর্যটক সহ সকল নাগরিকের নিরাপত্তা বিধানে পুলিশের বিভিন্ন টিমের প্রতিনিয়ত অভিযান অব্যাহত আছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here