খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণে ভুট্টার পরিত্যক্ত অংশ

29

রাবি প্রতিনিধি: সাধারণত ভুট্টা খাওয়ার পর আমরা ভিতরের দন্ডটি ফেলে দিয়ে থাকি। তবে এবার ভুট্টা খাওয়ার পর আর ফেলাতে হবে না ভিতরের পরিত্যক্ত ডাঁটাটি (কর্ন কব)। ভুট্টার এই পরিত্যক্ত দন্ড (কর্ন কব) থেকে উৎপাদিত হবে খাদ্য প্রক্রিয়াজাতে ব্যবহৃত কার্বোক্সিমিথাইল সেলুলোস (সিএমসি) নামের এক রাসায়নিক পদার্থ। সম্প্রতি বাংলাদেশ শিল্প ও বিজ্ঞান গবেষণাগার রাজশাহীর বিজ্ঞানীরা এই প্রযুক্তিটি উদ্ভাবন করেছেন।

বুধবার বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণাগার তেল চর্বি ও মম গবেষণা বিভাগের প্রিন্সিপাল সায়েন্টিফিক অফিসার ও গবেষণা তত্ত্বাবধায়ক মো. মঈন উদ্দিন নতুন এই প্রযুক্তি উদ্ভাবনের কথা জানান।

ভুট্টার দন্ড থেকে সিএমসির ব্যবহার সম্পর্কে তিনি জানান, খাদ্য, ঔষুধ ও টেক্সটাইল শিল্পে পণ্য প্রক্রিয়াজাতের জন্য বিদেশ থেকে প্রতিবছর বহু পরিমাণে সিনথেটিক সিএমসি পাওডার আমদানী করা হয়। এসব পণ্য প্রক্রিয়াজাত করণে বিদেশ থেকে আমদানিকৃত এই সিএমসির বিপরীতে সম্পূর্ণ প্রকৃতিক উৎস থেকে উৎপাদিত এই প্রযুক্তিটি ব্যবহার করা যাবে।

এতে একদিকে যেমন বৈদশিক মুদ্রা সাশ্রয় হবে, ব্যয় কমবে অন্যদিকে বাংলাদেশে যে পরিমাণ ভুট্টা উৎপাদিত হচ্ছে ভবিষ্যতে দেশের সিএমসি’র সয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনে ভূমিকা এটি রাখবে বলেও জানান তিনি।

বাংলাদেশ বিজ্ঞান মন্ত্রণালয়ের অধীনে শিল্প ও গবেষণাগারের তেল চর্বি গবেষণা বিভাগের প্রিন্সিপাল সায়েন্টিফিক অফিসার মো মঈন উদ্দিনের তত্তাবধায়নে এই গবেষণায় ড. শারমিনা ইয়াসমিন, ড. মুনসুর রহমান, ড. আব্দুল জলিল  সহযোগীতা করেছেন।#