চট্টগ্রামে প্রথম চালু হল মাল্টিলেভেল অটোমেটিক কার পার্কিং

91

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:চট্টগ্রামের বিপনী বিতানে (নিউ মার্কেট) চালু হল প্রথম মাল্টিলেভেল অটোমেটিক কার পার্কিং। বিশেষ কোড সম্বলিত কার্ড পাঞ্চিংয়ের মাধ্যমে কার পার্কিং সুবিধাটি ২২ এপ্রিল শনিবার উদ্বোধন করা হয়েছে ।

প্রায় চার কোটি ব্যয়ে সাত তলা বিশিষ্ট স্বয়ংক্রিয় গাড়ি রাখার জায়গাটি নির্মাণ করেছে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ। এর প্রত্যেক তলায় রয়েছে ৫টি করে স্ট্রে। প্রত্যেকটি ট্রে তে রয়েছে ১টি করে গাড়ি রাখার জায়গা। স্বয়ংক্রিয় গাড়ি মুভমেন্টের জন্য প্রথম ছয় তলায় একটি করে ট্রে খালি রাখা হবে এবং ৭ম তলায় রাখা হবে ৫টি গাড়ি। অর্থাৎ মাত্র ৫টি গাড়ি রাখার স্থানে গাড়ি রাখা যাবে ২৯টি।

শনিবার বিকালে বিপনী বিতান পার্কিং স্থানে আয়োজিত সমাবেশে সম্মানিত অতিথি ছিলেন সাবিহা মুছা এমপি। উদ্বোধক ছিলেন সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম।
উদ্বোধনকালে ছালাম বলেন, আধুনিক সুবিধা সংযোজনে বরাবরের মতই দেশের প্রথম এই চট্টগ্রাম নিউ মার্কেট। দেশে প্রথম কোনো মার্কেটে এক্সেলেটর লিফট বা চলমান সিড়ি সংযোজন হয়েছিল এখানেই। এবার চালু হল স্বয়ংক্রিয় ও বহুতল গাড়ি পার্কিং ব্যবস্থা। অনেকেই বলে থাকেন চট্টগ্রাম হবে সিঙ্গাপুর। আমি তা বলি না, আমি বলি চট্টগ্রাম হবে বিশ্বের আধুনিকতম শহরের একটি।

যেখানে বিশ্বের আধুনিকতম সকল সুবিধা বিদ্যমান থাকবে এবং অনেক শহরই চট্টগ্রাম এর মত করে গড়ে তুলতে চাই।
তিনি আরো বলেন, বিপনী বিতানে ডিজিটাল কার পার্কিং সংযোজন একটি ধারনা, এটি একটি নিদর্শন রাখলাম। স্বল্প জায়গার সর্বোচ্চ ব্যবহারের এ ধারনা ও নিদর্শন নগরীতে বিদ্যমান গাড়ি পার্কিং সমস্যা নিরসনে পথ দেখাবে। আমাদের যৌবনের স্মৃতিময় নিউ মার্কেটেই প্রথম এ ধরনের ব্যবস্থা চালুকরণও স্মৃতিময় হয়ে থাকবে চিরকাল। ব্যবহারকারীদেকেই এর সুষ্ঠু ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। আর বিপনী বিতানের প্রাচীন ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে, পণ্যের গুণগত মান ও আশপাশের পরিবেশ ঠিক রাখতে ব্যবসায়ী সংগঠনকে কাজ করতে হবে এবং ক্রেতা সন্তুষ্টি অর্জনে ভাল ব্যবহার নিশ্চিত করতে পারলে নিউ মার্কেট তার হারানো গৌরব ফিরে পাবে।
সাবিহা মুছা এমপি বলেন, বিপনী বিতান চট্টগ্রামের ঐতিহ্য, কেউ চট্টগ্রাম আসলেই দেখতে আসতেন এই বিপনী বিতান, এটা নিউ মার্কেট নামে সমাধিক পরিচিত। এর নির্মাণ শৈলী, র‌্যাম, চওড়া গলি, পর্যাপ্ত আলো, বাতাস, প্রাকৃতিকভাবে শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ ও দেশে প্রথম চলমান সিড়ি ছিল স্বপ্নময়। আজকে মাল্টিলেভেল কার পার্কিং স্থাপনের মাধ্যমে সিডিএ চেয়ারম্যান আবারো প্রমাণ করলেন তিনি কবির কবিতার সেই ছেলেটি। যিনি কথায় নয় কাজেই বড় হতে চান।

বিপনী বিতান ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতি’র সভাপতি মোহম্মদ সাগিরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন ফিরিঙ্গীবাজার ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সিডিএ বোর্ড সদস্য হাসান মুরাদ বিপ্লব, বোর্ড সদস্য আ ম ম টিপু সুলতান চৌধুরী, এনায়েত বাজার ওয়ার্ড কাউন্সিলর সলিম উল্লাহ বাচ্চু, মহিলা কাউন্সিলর আনজুমান আরা বেগম, সিডিএ সচিব তাহেরা ফেরদৌস, প্রধান প্রকৌশলী জসীম উদ্দিন, বিপনী বিতান ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতি’র সাধারণ সম্পাদক খুরশিদ আলম। সম্পূর্ণ অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন সমিতির সদস্য প্রদীপ চৌধুরী টিংকু।