চট্টগ্রাম শিল্পকলা একাডেমীতে হামল নয়, বাঙ্গালী সংস্কৃতির উপর হামলা হয়েছে : ছাত্রলীগ

38

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:চট্টগ্রাম শিল্পকলা একাডেমীতে হামলার ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ ও নিন্দা জ্ঞাপন করেছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। এ হামলার ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে এক বিবৃতিতে নগর ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান আহমেদ ইমু ও সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনি হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবী জানিয়েছেন।

সোমবার রাতে নগর ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে চট্টগ্রাম শিল্পকলা একাডেমীতে হামলার ঘটনাকে বাংলাদেশের হাজার বছরের সংস্কৃতির বিশ্বাস, রীতিনীতি, নীতিবোধ, চিরাচরিত প্রথা, সমষ্টিগত মনোভাব, সামাজিক মূল্যবোধ ও তার সাথে সম্পর্কিত কীর্তিসমূহের উপর হামলা হিসাবে আখ্যায়িত করেছেন। ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারের দাবীতে চট্টগ্রামের সকল সাংস্কৃতিক সংগঠনের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনে একাত্মতা প্রকাশ করে নগর ছাত্রলীগ পাশে থাকার ঘোষণাও দিয়েছেন।

যৌথ বিবৃতিতে এসময় নগর ছাত্রলীগের দুই শীর্ষ নেতা জানান,যারা শিল্পকলা একাডেমীতে হামলার ঘটনার সাথে জড়িত তারা নিশ্চিত ভাবে এদেশের স্বাধীনতা স্বার্বভৌমত্বে বিশ্বাস করেনা। সাংস্কৃতিক কর্মীদের উপর হামলার ঘটনা বর্বর পাকিস্তানী মতাদর্শে বিশ্বাসী এই দেশীয় দোসরদের কথা স্বরণ করিয়ে দেই। যারা স্বাধীনতা পরবর্তী সময়েও পাকিস্তানের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করতে এই দেশের সংস্কৃতি ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনার উপর বারবার আঘাত করেছে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সেই সকল উগ্রবাদী পাক মতাদর্শে বিশ্বাসীদের বিরুদ্ধে সব সময়ে সচেতন ও প্রতিবাদী ভূমিকায় অবতীর্ণ আছে।

এসময় নগর ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে উক্ত ঘটনায় কয়েকটি দৈনিক পত্রিকায় ছাত্রলীগের উপর দায় চাপিয়ে সংবাদ পরিবেশনে বিস্ময় প্রকাশ করেছে। ছাত্রলীগ মনে করছে হামলার ঘটনা ভিন্ন খাতে নিয়ে গিয়ে মূল অপরাধীদের আড়াল করতে ছাত্রলীগের উপর দায় চাপানো হয়েছে।
সংবাদপত্রের এমন ভূমিকায় ছাত্রলীগের প্রতিটি নেতাকর্মী আজ মর্মাহত হয়েছে জানিয়েছেন নগর ছাত্রলীগ।

উক্ত ঘটনায় দোষীদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশ প্রশাসনকে অনুরোধ জানান এবং আগামীতে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে সংবাদ পরিবেশনের আগে তা যাচাই বাচাই করে সংগঠনের দায়িত্বশীল নেতৃত্বের সাথে যোগাযোগ করে সংগঠনের বক্তব্য গ্রহণের করার জন্য সংবাদ মাধ্যমকে অনুরোধ জানিয়েছে।