নরসিংদীতে এইচএসসি পরীক্ষায় ডিজিটাল পদ্ধতি’র অপব্যবহারে শিক্ষকসহ ৫ জন বহিষ্কার

119

নরসিংদী প্রতিনিধিঃ নরসিংদীতে এইচএসসি পরীক্ষাকালীন সময়ে কেন্দ্রে সেল-ফোন ব্যবহারের অপরাধে ৩ শিক্ষকসহ ২ পরীক্ষার্থী বহিস্কার। সাটিরপাড়া কে. কে. ইনস্টিটিউট স্কুল এ্যান্ড কলেজ ও মাধবদী গার্লস স্কুল এ্যান্ড কলেজ কেন্দ্র পরিদর্শনকালে দায়িত্বপ্রাপ্ত ম্যাজিস্ট্রেট তাদের বহিস্কারাদেশ প্রদান করেন। বহিষ্কারকৃতরা হলেন, নরসিংদী সরকারী কলেজের ব্যবসায় শিক্ষার ছাত্র মাহফুজ হোসাইন, মাধবদী গার্লস্ স্কুল এ্যান্ড কলেজের প্রভাষক তাহমিনা ছিদ্দিক, বাবুরহাট গ্রীণ ফিল্ড কলেজের প্রভাষক রোকসানা আহমেদ, ফরিদা হাসেম ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজের প্রভাষক নয়ন মিয়া ও মাধবদী মহাবিদ্যালয়ের মানবিক শাখার ছাত্র শাকিল মিয়া।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, ৮ এপ্রিল শনিবার পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মাহবুব হাসান শাহীন দেশব্যাপী অনুষ্ঠিতব্য এইচএসসি পরীক্ষা-২০১৭’র ইংরেজি দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা চলাকালে মাধবদী গার্লস স্কুল এ্যান্ড কলেজ পরিদর্শন করেন। এ সময় পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাধবদী মহাবিদ্যালয়ের মানবিক শাখার ছাত্র শাকিল মিয়ার হাতঘড়ি দেখে সন্দেহ করেন। এক পর্যায়ে তিনি হাতঘড়িটি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে স্মাটফোন হিসেবে চিহ্নিত করেন। পরীক্ষার্থী শাকিল মিয়া’র ব্যবহৃত স্মাটফোন সম্বলিত হাত-ঘড়িতে বইয়ের পাতা সংরক্ষণ সাপেক্ষে অবৈধ পন্থাবলম্বনে পরীক্ষা চালিয়ে আসছিল। এরই প্রেক্ষিতে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাহবুব হাসান শাহীন উক্ত অপরাধে শিক্ষার্থী শাকিল মিয়াকে বহিষ্কার করেন। একই সময়ে অনুষ্ঠিতব্য পরীক্ষা কেন্দ্রে দায়িত্ব পালনকালে সেল-ফোন ব্যবহারের অভিযোগে মাধবদী গার্লস স্কুল এ্যান্ড কলেজের প্রভাষক তাহমিনা ছিদ্দিক, বাবুরহাট গ্রীণ ফিল্ড কলেজের প্রভাষক রোকসানা আহমেদ, ফরিদা হাসেম ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এ্যান্ড কলেজের প্রভাষক নয়ন মিয়াকেও বহিষ্কার করা হয়।

অপরদিকে বেলা পৌঁনে একটায় সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মেহেদী হাসান শহরের সাটিরপাড়া কে. কে. ইনস্টিটিউট স্কুল এ্যান্ড কলেজ কেন্দ্র পরিদর্শনকালে পরীক্ষা কেন্দ্রে সেল-ফোনের মাধ্যমে উত্তরপত্র লেখার অপরাধে নরসিংদী সরকারী কলেজের ব্যবসায় শিক্ষার ছাত্র মাহফুজ হোসাইনকে বহিষ্কার করেন।

নরসিংদী জেলা এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মাহবুব হাসান শাহীন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, ভবিষ্যতে সকল পরীক্ষা কেন্দ্রসমূহে শিক্ষা বিষয়ক নীতিমালা বহিভূত কর্মকান্ডের জন্য পরীক্ষার্থীসহ সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে। এ সময় তিনি শিক্ষার্থী ও শিক্ষকসহ সংশ্লিষ্টদের সতর্ক থাকতে অনুরোধ জানান।

#
০৯.০৪.১৭