রোগী একজন চিকিৎসক তবুও সরকারী হাসপাতালে অবহেলা

53

বরিশাল ব্যুরো: ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের গৌরনদী বাসষ্ট্যান্ড সংলগ্ন চক্ষু হাসপাতালের সামনে মোটরসাইকেলের নিয়ন্ত্রন হারিয়ে গুরুতর আহত হয়েছেন প্রাইভেট হাসপাতালের গাইনী বিভাগের চিকিৎসক ডাঃ রাজিয়া সুলতানা।

স্থানীয়রা ডাঃ রাজিয়া সুলতানাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসেন গৌরনদী উপজেলা হাসপাতালে। সেখানে নিজেকে একজন চিকিৎসক পরিচয় দেয়া সত্বেও চিকিৎসায় চরম অবহেলা করার হয়েছে বলে অভিযোগ করেন আহত চিকিৎসক রাজিয়া সুলতানা। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার সকাল দশটার দিকে।

পরবর্তীতে গুরুত্বর আহত ডাঃ রাজিয়া সুলতানাকে মুর্মুর্ষ অবস্থার তার নিকট আত্মীয়-স্বজনেরা বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করেন। দুর্ঘটনায় ডাঃ রাজিয়া সুলতানার ডান হাত ও ডান পা ভেঙ্গে গেছে। বরিশাল জেলার উত্তর জনপদে গাইনী বিভাগের অন্যতম চিকিৎসক ডাঃ রাজিয়া সুলতানা অভিযোগ করেন, আমি একজন ডাক্তার পরিচয় দেওয়ার পরেও সরকারী হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্মরত চিকিৎসক মাসুম বিল্লাহর কাছ থেকে কাঙ্খিত চিকিৎসা সেবা পাইনি।

পুরোপুরি অবহেলিত হয়েছি সরকারী হাসপাতালে। সাধারন রোগীদের প্রতি ডাক্তারদের অবহেলা আজ নিজের চোখে দেখলাম। আক্ষেপ করে ডাঃ রাজিয়া সুলতানা বলেন, একজন ডাক্তার হয়েও অসুস্থ্য অবস্থায় সরকারী হাসপাতালে সেবা নিতে এসে কর্তব্যরত ডাক্তারের ভূমিকা দেখে নিজেকে আজ থেকে এ পেশায় পরিচয় দিতে খুবই ঘৃণা হচ্ছে। স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেন, একজন ডাক্তার হয়েও রাজিয়া সুলতানা সরকারী হাসপাতালে চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হয়েছেন।

সেখানে সাধারন মানুষ কি ধরনের চিকিৎসা সেবা পেতে পারে তা আর বলার অপেক্ষা রাখেনা। অভিযোগ অস্বীকার করে ডাঃ মাসুম বিল্লাহ বলেন, প্রাথমিক চিকিৎসায় ডাঃ রাজিয়া সুলতানার অবস্থার অবনতি হলে তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে নেয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। সেখানে চিকিৎসায় কি ধরনের অবহেলা করা হলো, তা আমার বোধগম্য নয়।