রোহিঙ্গাদের দুর্দশা বিক্রি করে পুরস্কার প্রাপ্তির আশায় উৎসবে ব্যস্ত সরকারঃ রিজভী

65

বিডিসংবাদ ডেস্কঃ  জাতিসংঘের মতো আন্তর্জাতিক ফোরামে গিয়েও রোহিঙ্গা সঙ্কটের কোনো সুরাহা করতে না পেরে ব্যথ হয়ে ফিরে আসছেন প্রধানমন্ত্রী। এখন জাতিসংঘকে পাশ কাটিয়ে রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমার ও বাংলাদেশের মধ্যে যে ধরনের বৈঠক হয়েছে তা আইওয়াশ ছাড়া কিছুই নয় বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

আজ মঙ্গলবার সকালে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, মিয়ানমারের মন্ত্রী সাথে বাংলাদেশের বৈঠকে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠনের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন একটি সুদীর্ঘ বিলম্বিত পথ। রোহিঙ্গাদের পূর্ণ নিরাপত্তাসহ স্বদেশে ফেরত নেয়ার তাগিদ সেখানে নেই। রোহিঙ্গাদের দুর্দশা বিক্রি করে পুরস্কার প্রাপ্তির আশায় উৎসবে ব্যস্ত সরকার।

নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলন হয়। এসময় বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, কেন্দ্রীয় নেতা হাবিবুল ইসলাম হাবিব, মীর সরফত আলী সপু, আজিজুল বারী হেলাল, অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, মো: মুনির হোসেন, আসাদুল করিম শাহিন, আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে রুহুল কবির রিজভী বলেন, বাংলাদেশের মানুষ এখন মহাদুর্যোগে। গণতন্ত্র নেই, আইনের শাসন নেই। মানুষের ব্যক্তিস্বাধীনতা নেই। বিরতিহীন গুম খুন হত্যা ও অপহরণ চলছে। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভেঙে পড়েছে। ভয়াল দুঃশাসনের কবলে গোটা জাতি। আর প্রধানমন্ত্রী ছুটছেন পুরস্কারের পেছনে। তিনি বন্দুকের নল তাক করে রাষ্ট্রের সব অঙ্গকে কর্তৃত্বে আনতে এখন মরিয়া। রোহিঙ্গাদের বিভিন্ন কারণে বাংলাদেশ বর্তমানে গভীর সঙ্কটে নিপতিত থাকলেও আওয়ামী লীগ নেতারা এখন প্রধানমন্ত্রীকে পুরস্কার এনে দেয়ার লবিংয়ে ব্যস্ত।

বিডিসংবাদ/এএইচএস