‘আতিয়া মহলে অভিযানে চালাবে সেনাবাহিনী’

51

সিলেটের শিববাড়ির আতিয়া মহলে থাকা শক্তিশালী বিস্ফোরক ধ্বংস করতে সেখানে ফের অভিযান চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেনাবাহিনী। আগামীকাল সোমবার সকাল সাড়ে ৮টায় আবারও অভিযানে নামবে সেনাবাহিনীর বোম্ব ডিসপোজাল টিম।

সেখানে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) আলামত সংগ্রহ করার পরই ভেতরে থাকা দুই জঙ্গির লাশ উদ্ধার করবে সেনাবাহিনী।

আজ রোববার বিকেলে সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (মিডিয়া) জেদান আল মুসা জানান, পুলিশের বোম্ব ডিসপোজাল টিম ঢাকা থেকে জালালাবাদ সেনানিবাসে গিয়েছিল। সেখানে দফায় দফায় বৈঠক শেষে সেনাবাহিনীর বোম ডিসপোজাল টিম আবারও অভিযানে নামবে বলে সিদ্ধান্ত হয়। এই সিদ্ধান্তের পর পুলিশের ওই টিমটি আবারও ঢাকার ফিরে আসে।

আতিয়া মহলে সেনাবাহিনীর প্যারা কমান্ডোদের ‘অপারেশন টোয়াইলাইট’ শেষ হয়েছে গত ২৮ মার্চ মঙ্গলবার। কিন্তু ভেতরে প্রচুর বিস্ফোরক থাকায় এখনো উদ্ধার করা হয়নি দুই জঙ্গির লাশ। সেনাবাহিনীর অভিযানে ঝাঁঝরা হওয়া আতিয়া মহলের ভেতর থেকে এখন বের হচ্ছে লাশের গন্ধ।

গত ২৩ মার্চ বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে সিলেটের দক্ষিণ সুরমার শিববাড়ি এলাকায় জঙ্গি আস্তানার বিষয়টি টের পেয়ে আতিয়া মহলের চারদিকে অবস্থান নেয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। পরে ২৫ মার্চ শনিবার সকাল থেকে ‘অপারেশন টোয়াইলাইট’ পরিচালিত হয়। সেনাবাহিনীর ১৭ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল আনোয়ারুল মোমেনের নেতৃত্বে এই অভিযান চালানো হয়।

অভিযানের শুরুতে উদ্ধার করা হয় ওই ভবনে অবরুদ্ধ থাকা ৭৮ জনকে। ওইদিন রাতে আতিয়া মহলের অদূরে এক ঘণ্টার ব্যবধানে দুটি বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় সাতজন নিহত এবং আহত হন অর্ধশত। ২৮ মার্চ সন্ধ্যায় শেষ হয় ‘অপারেশন টোয়াইলাইট’। অভিযানে নিহত চার জঙ্গির মধ্যে এখনো ভেতরে পড়ে আছে দুই জঙ্গির লাশ।