“বাংলালিংক ই-শপ” নামে ই-কমার্স সাইট চালু করলো বাংলালিংক

56

বিডিসংবাদ ডেস্কঃ  বাংলাদেশের অন্যতম ডিজিটাল সেবাদাতা  প্রতিষ্ঠান বাংলালিংক “বাংলালিংক ই-শপ” নামে একটি ই-কমার্স সাইট চালু  করেছে, যার মাধ্যমে  ব্যান্ডেল অফার সহ হ্যান্ডসেট ক্রয়, পছন্দের ডাটা প্যাক কিনা, পছন্দের নম্বর ক্রয়, রিচার্জ করা, অ্যাকসেসরিজ ক্রয় সহ আরও অনেক ধরনের সেবা পাওয়া যাবে। ডিজিটাল জীবনযাত্রা ও গ্রাহকদের সাথে নিরবচ্ছিন্ন সম্পর্ক স্থাপনের ক্ষেত্রে এটি একটি উল্লেখযোগ্য ধারাবাহিক পদক্ষেপ।

সাইটটির মাধ্যমে বর্তমানে ২০টিরও বেশি হ্যান্ডসেট ব্যান্ডেল অফার সহ দেশব্যাপী বিনামূল্যে ডেলিভারি দেওয়া হচ্ছে।  প্রথম ৫০০ ক্রেতার জন্য থাকছে বিশেষ গিফট, এবং বাংলালিংক প্রিয়জন কাস্টমারদের জন্য প্ল্যাটিনাম সুইটস, প্ল্যাটিনাম গ্র্যান্ড, কমিক ক্যাফে ঢাকাসহ আরও বেশ কিছু স্থানে থাকছে বিশেষ অফার। আগামীতে প্রতি মাসে সাইটটিকে আরও ডিভাইস, অ্যাকসেসরিজ, বান্ডেল অফার, বিশেষ ডিভাইস ডিল, ন্যাশনাল ওয়াইড স্টোর পিকআপ সার্ভিস, অফার ও ডেইলি ডিলের মাধ্যমে সমৃদ্ধ করে তোলা হবে।

ডিজিটাল জীবনযাত্রা আগামী দিনের বাস্তবতা। স্মার্টফোন ও নির্ভরযোগ্য ইন্টারনেটের মাধ্যমে সমগ্র বিশ্ব এখন গ্রাহকদের হাতের মুঠোয় চলে এসেছে। এখন মানুষ ইন্টারনেটে বেশিরভাগ সময় ব্যয় করে এবং নির্ভরযোগ্য অনলাইন শপের মাধ্যমে বিভিন্ন জিনিস ক্রয় করতে পছন্দ করে। বাংলালিংক বিশ্বাস করে যে, ডিজিটাল সার্ভিস ভবিষ্যতের নতুন সম্ভাবনার দ্বার উন্মোচনে সহায়তা করবে। এ জন্যই বাংলালিংক গ্রাহকদের চাহিদা বুঝে তাদের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য সহযোগী হতে চায়। ডিভাইস, ইন্টারনেট প্যাক, অন্যান্য অ্যাকসেসরিজসহ অনলাইন শপের সব পণ্যই গ্রাহকদের চাহিদার কথা বিবেচনায় রেখে নির্বাচন করা হয়েছে।

লগ অন করুন https://www.banglalink.net/en/eshop

বাংলালিংকের হেড অফ ই-বিজনেস রাশেদ মোসলেম বলেন, “বাংলালিংক ই-শপ” বাংলালিংক জন্য ডিজিটালাইজেশনের দিকে আরও একটি দৃঢ় পদক্ষেপ। সরবরাহ ও অবকাঠামোগত সাহায্যের মাধ্যমে বাংলাদেশে ই-কমার্স ইন্ডাসট্রিকে তুলে ধরা আমাদের লক্ষ্য। এই লক্ষ্য অর্জনের দিকে “বাংলালিংক ই-শপ” আমাদের অন্যান্য পদক্ষেপগুলির মধ্যে একটি। এছাড়াও বাংলাদেশে একটি শক্তিশালী ই-কমার্স সেক্টর প্রতিষ্ঠা করার লক্ষে একসাথে কাজ করার আশ্বাস দেওয়ার জন্য ই-ক্যাবকে আমরা ধন্যবাদ জানাতে চাই। গ্রাহকদের জন্য আরও উপযুক্ত ও নির্ভরযোগ্য একটি প্ল্যাটফর্ম তৈরির জন্য বাংলালিংক ও ই-ক্যাব একসাথে কাজ করবে।”

প্রযুক্তির মাধ্যমে জীবনযাত্রাকে পরিবর্তন করার ক্ষেত্রে একটি দৃষ্টান্তমূলক ভূমিকা রেখে  গত বারো বছর ধরে বাংলাদেশে কার্যক্রম পরিচালনা করছে বাংলালিংক। শুধু টেলিকম ইন্ডাসট্রিকে এগিয়ে নেওয়াই নয়, বাংলাদেশ সরকারের ডিজিটাল ভিশন বাস্তবায়নের ক্ষেত্রেও সহায়ক ভূমিকা পালন করছে বাংলালিংক।

বিডিসংবাদ/এএইচএস