মেয়র মিরুর ভাই মিন্টু ও গাড়িচালক শাহিনের জামিন নামঞ্জুর

115

সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুল হত্যা মামলায় শাহজাদপুর পৌরসভার মেয়র হালিমুল হক মিরু ও তার ভাই মিন্টুর ফের সাত দিনের রিমান্ড চেয়েছে পুলিশ। এ বিষয়ে আদালত ২৮ ফেব্রুয়ারি শুনানির দিন ধার্য করেছেন।

এর আগে সোমবার দুপুরে পাঁচ দিনের রিমান্ড শেষে মেয়রের ভাই মিন্টু ও গাড়িচালক শাহিন আলমকে শাহজাদপুরের আমলী আদালতে হাজির করা হয়। তাদের আইজীবীরা জামিনের আবেদন করলে এবং এর বিপরীতে রাষ্ট্রপক্ষ আবারও মিন্টুর রিমান্ড চাইলে আদালত তাদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

সোমবার দুপুরে আদালতের জ্যেষ্ঠ বিচারিক মো. হাসিবুল হক এ আদেশ দেন।

শাহজাদপুরের আমলী আদালতের জেনারেল রেকর্ড অফিসার (জিআরও) মো. আতাউর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শাহজাদপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মনির হোসেন আদালতে তাদের হাজির করেন। এ সময় আসামি পক্ষের আইনজীবী পুনরায় তাদের জামিনের আবেদন করেন। বিচারক তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

অন্যদিকে, শাহজাদপুর থানা পুলিশের হাতে আটক সাহেব আলীকে শিমুল হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় অভিযুক্ত দেখিয়ে তাকেও সোমবার আদালতে হাজির করা হয়। বিচারক তারও জামিন নামঞ্জুর করে জেলা কারাগারে পাঠানোর নিদের্শ দেন।

প্রসঙ্গত, ২ ফেব্রুয়ারি পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে মেয়র মিরু ও তার ভাই মিন্টুর শটগানের গুলিতে গুরুতর আহত হন দৈনিক সমকালের শাহজাদপুর প্রতিনিধি আব্দুল হাকিম শিমুল। পরদিন ঢাকায় নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

এ ঘটনায় মেয়র মিরু, তার ভাই মিন্টুসহ ১৮ জন এবং অজ্ঞাত আরও ২০/২৫ জনকে আসামি করে শাহজাদপুর থানায় হত্যা মামলা করেন শিমুলের স্ত্রী নুরুন্নাহার খাতুন। ৫ ফেব্রুয়ারি রাতে মিরুকে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তার দুই সহোদর মিন্টু এবং পিন্টুকেও গ্রেফতার করা হয়।