অবসরে গেলেন বিচারপতি মো. নিজামুল হক

37

সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের বিচারক বিচারপতি মো. নিজামুল হক অবসরে গেলেন। মঙ্গলবার ছিল তার শেষ কর্মদিবস। এদিন তিনি আপিল বিভাগের ২নং এজলাসে বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহাব মিয়ার নেতৃত্বাধীন বেঞ্চে মামলার শুনানি গ্রহণ ও নিষ্পত্তি করেন।

আপিল বিভাগের বিচার কার্যক্রম শেষে এটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ন তাকে বিদায় সংবর্ধনা দেন।

সংবর্ধনার জবাবে বিচারপতি নিজামুল হক বলেন, ২০০৩ সালে আমিসহ কিছু বিচারককে হাইকোর্টের স্থায়ী বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়নি। সেই অন্যায় অবিচারের কারণে আমরা ক্ষণিকের জন্য বঞ্চিত হলেও তা স্থায়ী হয়নি। পরবর্তীতে আমাদের নিয়োগ না দেয়ার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করি। হাইকোর্ট আমাদের নিয়োগ দেয়ার জন্য সরকারকে নির্দেশ দেয়। এরপর আপিল বিভাগ কিছু সংশোধনী এনে হাইকোর্টের ওই রায় বহাল রাখে। এই মামলার আইনি প্রক্রিয়ার সঙ্গে যেসব আইনজীবী জড়িত তাদের সাধুবাদ দেন তিনি।

তিনি বলেন, ৪০ বছরের অধিককাল সময় আমি আইনপেশায় জড়িত। সত্য ও ন্যায়নিষ্ঠ ভূমিকা পালন করে আসছি। এবং ভবিষতেও করবো।

এটর্নি জেনারেল বলেন, বিচারপতি নিজামুল হক আইনজীবী হিসেবে একজন মানবাধিকার কর্মী ছিলেন। অবসরে গিয়েও তিনি মানবাধিকার রক্ষায় কাজ করে যাবেন এটাই আমাদের প্রত্যাশা।