অপ্রতিরোধ্য মেসিই আর্জেন্টিনার পরবর্তী প্রেসিডেন্ট!

বিডিসংবাদ অনলাইন ডেস্কঃ

অনেক ফুটবল বিশেষজ্ঞই মনে করছেন, এবার লিওনেল মেসির হাতেই ওঠবে বিশ্বকাপ। তারা এ প্রসঙ্গে ব্রাজিলকে হারিয়ে গতবছর আর্জেন্টিনার কোপা আমেরিকা জয়ের কথা বলছেন। ২৮ বছর পর কোপা জয় পায় মারাডোনার দেশ। নীল-সাদা জার্সিতে ট্রফির খরা কাটিয়ে ছিলেন লিও। মেসিরা হাতে বিশ্বকাপ দেখার জন্য আশায় বুক বাঁধছেন মেসির গোটা বিশ্বের সমর্থকরা। এখন দেখার বাঁ-পায়ের জাদুকর শেষ ল্যাপে ম্যাজিক করতে পারেন কিনা! এর উত্তর পাওয়ার জন্য আর কয়েকটা দিনের অপেক্ষা করতেই হবে। তবে আর্জেন্টিনার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট বলে দিলেন বড় কথা। মরিসিও ম্যাকরি বলছেন যে বিশ্বকাপ জিতলে মেসিই হবে আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট।

স্প্যানিশ পত্রিকা মার্কায় সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে মরিসিও বলেন, ‘আমরা সবাই তাকে প্রেসিডেন্ট হিসাবে নির্বাচিত করব। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হল দলটা ভীষণ উপভোগ করছে এই বিশ্বকাপ। টিমের পরিবেশ ভালো। এর কৃতিত্ব স্কালোনির প্রাপ্য। দলের কোচিং স্টাফরা দারুণ। আর্জেন্টিনার ভক্তরাই বিশ্বকাপে বুঁদ। আমি সবসময় বলেছি, পাঁচ-ছয়টি দল সেরা। বাকিরাও সলিড। যেকোনো কিছু ঘটতে পারে। ফ্রান্স এবং ব্রাজিল এগিয়ে থাকলেও, আমি বলব ওঠা-পড়া কিন্তু থাকবেই। যেই জিতবে ভাগ্য কিছুটা হলেও তার সহায় হবে। আর্জেন্টিনা কিন্তু এখনো ভাগ্যের সাহায্য পায়নি। দেখলে গেলে পোল্যান্ড কিন্তু ভাগ্যের সাহায্য পেয়েছে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে। মেসি তো আছেই। ও শুধুই বিশ্বের সেরা ফুটবলার নয়, দোহার ৮০ শতাংশ মানুষ চায় মেসিই হোক বিশ্বচ্যাম্পিয়ন।’

২০১৪ বিশ্বকাপে মেসি ট্রফির অত্যন্ত কাছে এসেও ছুঁয়ে দেখতে পারেননি। জার্মানি ১-০ গোলে আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে চতুর্থবারের জন্য বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। মেসি বিশ্বকাপে নামার আগেই বলেছিলেন, ‘কাতার বিশ্বকাপই আমার শেষ, নিশ্চিতভাবে এটা বলতে পারি। এই সিদ্ধান্ত আমি আগেই নিয়ে ফেলেছিলাম।’

চলতি বিশ্বকাপে মেসি আছেন আগুনে ফর্মে। চার ম্যাচে তিন গোল করেছেন ও করিয়েছেন এক গোল। আর্জেন্টিনা কাতারের অভিযান শুরু করেই মুখ থুবড়ে পড়েছিল। সৌদি আরব ২-১ হারিয়ে দেয় লা আলবিসেলেস্তেদের। তবে এরপরেই আর্জেন্টিনা ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে গিয়ে আগুনে ফুটবল খেলতে শুরু করে সব হিসাব বদলে দিয়েছে। প্রথম ম্যাচ হারা মেসি অ্যান্ড কোং এখন চলে গেছে কোয়ার্টার ফাইনালে। আগামী শুক্রবার লুসেল স্টেডিয়ামে নেদারল্যান্ডসকে হারাতে পারলেই মেসিরা চলে যাবেন শেষ চারে। এখন দেখার ১৯৮৬ সালের পর আর্জেন্টিনা ফের কাপ জিততে পারে কিনা!
সূত্র : জি নিউজ

বিডিসংবাদ/এএইচএস