‘অসঙ্গত’ টুইটের জন্য ক্ষমা চেয়েছেন আফগানিস্তানে নিযুক্ত মার্কিন দূত

বিডিসংবাদ অনলাইন ডেস্কঃ

আফগানিস্তানে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ কূটনীতিক ‘অসঙ্গত’ টুইটের জন্য বৃহস্পতিবার ক্ষমা চেয়েছেন। তার ওই টুইটার বার্তায় বলা হয়, সংগ্রামী আফগান নারীরা আফ্রিকান আমেরিকান ইতিহাস এবং সংস্কৃতি থেকে অনুপ্রেরণা পেতে পারে। খবর এএফপি’র।
মার্কিন রাষ্ট্রদূত কারেন ডেকার টুইটার বার্তায় বলেন, সপ্তাহের শুরুতে তিনি বেশ কয়েকটি পোস্ট দিয়েছেন। তার এসব পোস্টের উদ্দেশ্য ‘উত্তম অভিপ্রায়’ হলেও অনেকটা ‘রীতি বিরুদ্ধ’। পোস্টগুলোতে তিনি পরামর্শ দিয়ে বলেন, আফগান মহিলারা পপ সংস্কৃতি আইকন বিয়ন্স ও লিজোর মতো নারীদের কাছ থেকে শিখতে পারে।
আফগান নারীদের দুর্দশা সম্পর্কে তার এমন মন্তব্যের ব্যাপারে আপত্তি করা ইউজাররা অনলাইনে তাদের ক্ষোভ প্রকাশ করার পর তিন এক্ষেত্রে ক্ষমা চান।
২০২১ সালে অতি রক্ষণশীল তালেবান সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে অনেক ক্ষেত্রেই নারীদের অধিকার হ্রাস করা হয়েছে।
আর তখন থেকেই ইসলামপন্থী শাসকরা অধিকাংশ সাহায্য সংস্থায় (এনজিও) মহিলাদের কাজ করা নিষিদ্ধ করে। এছাড়া তাদের স্কুল বা বিশ্ববিদ্যালয়, পার্ক, জিম এবং জন সমাগমস্থলে যাওয়া নিষিদ্ধ করা হয়। আফগান নরীদেরকে জনজীবন থেকে কার্যকরভাবে আলাদা করে তাদের কঠোরভাবে পর্দা আইন মেনে চলার আদেশ দেওয়া হয়।

বিডিসংবাদ/এএইচএস