এক নজরে গত দিনের বিশ্বকাপ

বিডিসংবাদ অনলাইন ডেস্কঃ

গতকাল কাতার বিশ্বকাপের চার-চারটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সসহ দু’বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনাও গতকাল মাঠে নেমেছে আলাদা দু’ম্যাচে। তবে দু’দলের অভিজ্ঞতায় আছে পার্থক্য, ভিন্ন ভিন্ন স্বাদ পেয়েছে দুই চ্যাম্পিয়ন দল। তবে মিশ্র অনুভূতি মাঝের দুই ম্যাচে। কেউ জিতেনি, হারেনিও কেউ।

আর্জেন্টিনা ১-২ সৌদি আরব :
বিশ্বকাপ ফুটবলে গতকাল দিনের প্রথম ম্যাচে লুসাইল স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয় আর্জেন্টিনা ও সৌদি আরব। কাতার বিশ্বকাপে প্রথমবার খেলতে নেমে অঘটনের মুখোমুখি এবারের বিশ্বকাপের হট ফেভারিট আর্জেন্টিনা। দক্ষিণ আমেরিকান এই পরাশক্তি সৌদি আরবের কাছে হেরেছে ২-১ গোলে।

লিওনেল মেসির গোলে ১০ মিনিটেই এগিয়ে যায় আর্জেন্টিনা। পেনাল্টি থেকে গোল করেন মেসি। এরপর আর্জেন্টিনা আরো তিনটি গোল করলেও তা অফসাইডে বাতিল হয়। দ্বিতীয়ার্ধে আর্জেন্টিনার রক্ষণভাগে পাল্টা আক্রমণ করে বসে সৌদি আরব। ৪৮ মিনিটে সালেহ আল শেহরির সমতাসূচক গোলের পর ৫৩ মিনিটে সালেম আল দাওয়াসরির গোলে ২-১ ব্যাবধানে এগিয়ে যায় সৌদি আরব।
বারবার চেষ্টা করেও আর গোল পরিশোধ কতে পারেনি আর্জেন্টিনা। বাঁধার দেয়াল হয়ে দাঁড়ান সৌদির গোল রক্ষক মোহাম্মদ আল-ওয়েস।

ডেনমার্ক-তিউনিসিয়া গোলশূন্য ড্র :
কাতারের এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে গ্রুপ পর্বের খেলায় প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে মুখোমুখি হয় ডেনমার্ক ও তিউনিসিয়া। বিশ্বকাপে প্রথম দেখায় গোলশূন্য ড্র করেই সন্তুষ্ট থাকতে হচ্ছে দু’দলকে। ম্যাচের শুরু থেকে বল দখলের লড়াইয়ের ড্যানিশরা এগিয়ে থাকলেও সমানতালে লড়েছে তিউনিসিয়াও। প্রথমার্ধ ক্রিশ্চিয়ান এরিকসেন, পিয়েরে এমিল হজবার্গ, ক্রিস্টেনসনদের শত চেষ্টার পরেও গোলের খাতা খোলেনি ডেনমার্কের।

পোল্যান্ড-মেক্সিক গোলশূন্য ড্র :
ফিফা বিশ্বকাপ ফুটবলে কাতারের ৯৭৪ স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয় পোল্যান্ড ও মেক্সিকো। তবে কেউ জেতেনি এই ম্যাচে, ৯০ মিনিট শেষে গোল শূন্য ড্র হয়েছে। তবে জিতে যেতে পারতো পোল্যান্ড, যদি না মেক্সিকোর গোলকিপার গিলের্মো ওচোয়া বাঁধা না হয়ে দাঁড়াতেন। রবার্ট লেভানডফস্কির পেনাল্টি থামিয়ে দিয়েছেন তিনি। ১৯৬৬ সালের পর ওচোয়া প্রথম মেক্সিকান গোলকিপার হিসেবে পেনাল্টি সেভ করেছেন। এই নিয়ে টানা তিন বিশ্বকাপে পেনাল্টি মিস করলো পোল্যান্ড।

ফ্রান্স ৪-১ অস্ট্রেলিয়া :
জয় দিয়েই কাতার বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু করে ফ্রান্স। এমবাপ্পে-জিরুদের কাধে ভর করে ৪-১ গোলের জয় পেয়েছে ফ্রান্স। কয়েকটি নিশ্চিত গোলের সুযোগ মিস না করলে আরো বড় ব্যবধানে জেতার সুযোগ ছিল ফ্রান্সের সামনে। অবশ্য আক্রমণের শুরুটা অস্ট্রেলিয়ার হাত ধরেই, ৯ মিনিটের মাথায় মিডফিল্ডার ক্রেইগ গুডউইনের গোলে এগিয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া।

তবে ২৭ মিনিটের মাথায় ফ্রান্সকে সমতায় ফেরান অ্যাড্রিয়েন র‍্যাবিয়ট। দ্বিতীয় গোলটি আসে তার পাঁচ মিনিট পরেই অলিভিয়ের জিরুদের পা থেকে। ৬৮ মিনিটে তৃতীয় গোলটি করেন কিলিয়েন এমবাপ্পে। তিন মিনিট পরেই ম্যাচে দ্বিতীয় গোলের দেখা পেয়ে যান জিরুদ।

এই গোলে থিয়েরি অঁরির সাথে যৌথভাবে ফ্রান্সের সর্বোচ্চ গোলদাতা হলেন অলিভিয়ের জিরুদ (৫১)। এরপর ছোট-বড় সুযোগ মিস হয়েছে আরো একাধিক, তবে আর গোলের দেখা না পাওয়ায় ৪-১ গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে চ্যাম্পিয়নরা।

বিডিসংবাদ/এএইচএস

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here