ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যাত্রী সেবার মান উন্নত করতে গণ-শুনানি অনুষ্ঠিত

বিডিসংবাদ অনলাইন ডেস্কঃ

বিমান যাত্রীদের সেবার মান আরও উন্নত করতে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে গণ-শুনানি অনুষ্ঠিত হয়েছে।
আজ সোমবার সকাল ১১টায় বিমানবন্দর কনফারেন্স হলে এ গণ-শুনানির আয়োজন করেছিল সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। গণ-শুনানিতে বিমানবন্দরে ‘যাত্রী সেবার মান ও হয়রানির’ চিত্র তুলে ধরেন উপস্থিত বিভিন শ্রেণিপেশার প্রতিনিধিরা। এসময় বিমানবন্দরে পরিচালক মো. হাফিজ আহমদসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। গণ-শুনানিতে অংশগ্রহণকারীরা বলেন- অন্যান্য দেশের বিমানবন্দরের মতো আমাদের দেশেও বিমানবন্দরগুলোতে উষ্ণ আতিথেয়তা যাত্রীদের সঙ্গে ভালো ব্যবহার সকলেই প্রত্যাশা করেন। যাত্রীর লাগেজ চেক করার নামে বিমানবন্দরে যাত্রীদের হয়রানি করা হয় বলে অভিযোগ উঠে আসে। এসময় এক যাত্রী বলেন, ব্রিটেনে তার ইউনিভার্সিটি পড়ুয়া দুই ছেলেকে নিয়ে দেশে বেড়াতে আসেন। তিনি যখন বিমানবন্দরে প্রবেশ করছিলেন, তখন দারোয়ান তাদের আটকে রাখেন। তখন তিনি বলেন, তাদেরকে দেখে কি যাত্রী মনে হয় না? তিনি সঙ্গে থাকার পরও তাদের হয়রানি করা হয়। বিমানবন্দরে এমন অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা যেন না হয়, সে বিষয়ে তিনি অনুরোধ জানান।
সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম বলেন, ওসমানী বিমানবন্দরে এপ্রোচিংয়ে সমস্যা রয়েছে। যাত্রীর লাগেজ কাটা ও নানারকম হয়রানীর অভিযোগ রয়েছে, তবে তিনি এসকল অভিযোগ খতিয়ে দেখে তার দ্রুত প্রতিকার প্রয়োজন বলে দাবি জানান। তাছাড়া একজন বিমানযাত্রীকে কেন প্রশ্নবাণে করে জর্জরিত করা হবে এমন অভিযোগ ও করেন তিনি।
সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাব সভাপতি মুহিত চৌধুরী বলেন, বিমানের ভাড়া হঠাৎ করে বাড়িয়ে দেওয়া হয়। উদাহরণ টেনে বলেন, ১০০ টাকার ভাড়া ১৫০ হতে পারে। তাই বলে ৩০০ টাকা হতে পারে না। অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটের ভাড়াও তিন হাজার ৮০০ থেকে ৫ হাজারও হতে পারে। তাই বলে, ১০ হাজার হতে পারে না। এটা যাত্রী হয়রানির অংশ বিশেষ। এটা নিরসনে পদক্ষেপ নেওয়া জরুরি বলে তিনি দাবি জানান।
অভিযোগগুলো শুনার পর বিমানবন্দর ব্যবস্থাপক হাফিজ আহমদ বলেন, বিমানবন্দরে বিভিন্ন সমস্যা ছিল। তবে এসব এখন আর আগেরমতো নেই। তাছাড়া বিমান ল্যান্ডিং থেকে বেল্টের যে দূরত্ব সেখানে লাগেজ কাটার মতো সুযোগ নেই। পাশাপাশি মালামাল যখন বেল্টে আসে, তখন এপিবিএন সদস্যরা গুরুত্বের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেন। সেই সঙ্গে গোয়েন্দা তদারকিও করা হয়। অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটে বেসরকারি এয়ারলাইন্সগুলোতে টিকিটের বেশি দাম আদায়ের বিষয়ে তিনি বলেন, আমরা সংশ্লিষ্টদের কাছে লিখিতভাবে জানাবো, যাতে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেন। তিনি বিমানবন্দরে যাত্রী হয়রানী বন্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ ও যাত্রী সেবার মান আরও বৃদ্ধিতে সকল মহলের সহযোগিতা কামনা করেন।

বিডিসংবাদ/এএইচএস