ক্যাচ মিসের মাসুল দিয়ে শেষে স্বস্তি টাইগার শিবিরে

বিডিসংবাদ অনলাইন ডেস্কঃ

বাজে ফিল্ডিংয়ের মাসুল দিতে হচ্ছে বাংলাদেশকে। একাধিকবার জীবন পেয়ে ভারত এখন বড় সংগ্রহের পথে। দিনশেষে ৬ উইকেটে ২৭৮ রানে শেষ হয়েছে ভারতের ইনিংস। চেতেশ্বর পূজারা শতক স্পর্শ করতে না পারলেও, গড়ে দিয়ে গেছেন দারুণ ভিত্তি। ৯০ রান করে আউট হওয়ার আগে শ্রেয়াস আইয়ারকে সাথে নিয়ে গড়ে তুলেন ১৪৯ রানের গুরুত্বপূর্ণ জুটি। পূজারা ফিরলেও দিনশেষে শ্রেয়াস অপরাজিত আছেন ৮২ রানে।

অথচ চিত্রটা ভিন্নও হতে পারতো, সুযোগগুলো নিতে পারলে ইনিংসটা হয়তো বাংলাদেশের নিয়ন্ত্রণেই থাকতো। উদ্বোধনী জুটিতে ৪১ রান আসলেও এর পরই বড় ধাক্কা খায় ভারত। মাত্র ৭ রানের ব্যবধানে হারিয়ে ফেলে ৩ উইকেট। শুভমান গিলকে ফিরিয়ে দলকে প্রথম উপলক্ষ এনে দেন তাইজুল ইসলাম। ২০ রান করেন শুভমান। স্কোরবোর্ডে ৪ রান যোগ হতে না হতেই ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক লোকেশ রাহুলকেও হারায় দল, ২২ রান করে খালেদ আহমেদের শিকার হন তিনি।

দাঁড়াতে পারেননি বিরাট কোহলিও। দ্রুত ফিরেছেন তিনি। তাইজুল ইসলামের দ্বিতীয় শিকার হওয়ার আগে করেন মাত্র ১ রান। এলবিডব্লু আউট হয়েছেন তিনি, রিভিউ নিয়েও বাঁচতে পারেননি। তবে রিশাভ পান্তকে নিয়ে প্রাথমিক বিপর্যয় সামলে উঠেন চেতেশ্বর পূজারা। দু’জনের আগ্রাসী ৬৪ রানের জুটি যতক্ষণে ভাঙে, ততক্ষণে ভারতের রান তিন অংক ছুঁয়েছে। দলীয় ১১২ রানে রিশভ পান্ত মেহেদী হাসান মিরাজের শিকার হলে ভাঙে এই জুটি, আউট হওয়ার আগে করেন ৪৫ বলে ৪৬ রান।

এরপর শ্রেয়াস আইয়ারকে নিয়ে দাঁড়ান চেতেশ্বর পূজারা। তবে ভাগ্য সহায় হলে এই জুটি থেমে যেত শুরুর দিকেই। তবে দুটো ক্যাচ মিস করে সেই সুযোগ হাতছাড়া করেছেন উইকেটরক্ষক নুরুল হাসান সোহান। ইবাদতের বলে আউটসাইড-এজে ক্যাচ দেন পূজারা, তবে তা হাতে জমাতে পারেননি নুরুল। পূজারা তখন ব্যাটিং করছিলেন মাত্র ১২ রানে। দ্বিতীয় সুযোগটি আসে ৪৮তম ওভারে সাকিবের বলে। কাট শট খেলতে গিয়ে ক্যাচ দিয়েছিলেন আইয়ার, তবে এবারো বল হাতে রাখতে ব্যর্থ হন নুরুল হাসান।

পরের গল্পটা ৩১৭ বলে ১৪৯ রানের জুটির। দিনের শেষাংশে এসে যেই জুটি ভেঙেছেন তাইজুল। চেতেশ্বর পুজারাকে নিজের তৃতীয় শিকার বানিয়েছেন এই স্পিনার। বোল্ড আউট হয়ে ব্যক্তিগত ৯০ রানে ফিরেছেন পুজারা। জুটিটা হয়তো ভাঙতে পারতো আরো একটু আগে, তবে এই যাত্রায় ক্যাচ ছেড়েছেন ইবাদত হোসেন।

পুজারার বিদায়ের পর অক্ষর প্যাটেলকে সঙ্গী বানান শ্রেয়াস আইয়ার। অবশ্য সঙ্গ শুরুর আগেই ফিরতে পারতেন অক্ষর, তবে তাইজুলের জোরালো আবেদনে সাড়া দেননি আম্পায়ার। রিভিউ নেয়নি বাংলাদেশ। তবে দিনের শেষ বলে সেই অক্ষরকেই ফিরিয়েছেন মেহেদী মিরাজ। আউট হওয়ার আগে অক্ষর করেন ২৬ বলে ১৪ রান।

আজ সাতজন বোলার ব্যবহার করেছেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। বল করেছেন ইয়াসির আলী রাব্বিও। ভারতের ৬ উইকেটের ৩টিই শিকার করেন তাইজুল। দু’টি উইকেট নিয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। খালেদ আহমেদ শিকার করেন একটি উইকেট। সাকিব আল হাসান কোনো উইকেট পাননি।

বিডিসংবাদ/এএইচএস