গাড়ির বাম্পারে নারীকে টেনেহিঁচড়ে নেয়া ঢাবির সেই সাবেক শিক্ষকের মৃত্যু

বিডিসংবাদ অনলাইন ডেস্কঃ

গাড়ির নিচে চাপাপড়া নারীকে প্রায় এক কিলোমিটার রাস্তা টেনেহিঁচড়ে নিয়ে যাওয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) চাকরিচ্যুত শিক্ষক মোহাম্মদ আজহার জাফর শাহ (৫৫) কারান্তরীণ অবস্থায় মারা গেছেন।

শুক্রবার (১৩ জানুয়ারি) ঢাকার কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগারে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাপসাতালে নিয়ে আসা হয়। বিকেল ৩টা ৪০ মিনিটে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

গত ২ ডিসেম্বর বেলা ৩টার দিকে ঢাবির চারুকলা অনুষদের সামনে আজহার জাফর শাহের প্রাইভেটকারের ধাক্কায় সামনের মোটরসাইকেল থেকে পড়ে যান রুবিনা আক্তার নামের এক নারী। ওই নারী প্রাইভেটকারের বাম্পারে আটকে যান। তখন গাড়ি না থামিয়ে রুবিনাকে ওই অবস্থাতে রেখেই দ্রুতগতিতে চালিয়ে যান চালক জাফর শাহ। তাকে ধাওয়া করে নীলক্ষেত মোড়ের কাছে ধরে গণপিটুনি দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ ক্ষুব্ধ সাধারণ মানুষ। ওই নারী পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

ওই ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়।

ওই ঘটনায় নিহত রুবিনা আক্তারের পরিবারের পক্ষ থেকে করা মামলায় আজহার জাফর শাহকে গ্রেফতার করা হয়।

আজহার জাফর শাহ একসময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষক ছিলেন। ক্লাসসহ একাডেমিক কার্যক্রমে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগে ২০১৮ সালে তাকে চাকরিচ্যুত করেছিল বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ বক্সের ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া বলেন, বেলা ৩টা ৩৩ মিনিটে জাফর শাহকে কারাগার থেকে অসুস্থ অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যালে আনা হয়। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিডিসংবাদ/এএইচএস

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here