গার্ডার দুর্ঘটনা : তদন্তের পর শাস্তির আশ্বাস চীনা রাষ্ট্রদূতের

বিডিসংবাদ অনলাইন ডেস্কঃ

উত্তরায় বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট (বিআরটি) প্রকল্পের গার্ডার দুর্ঘটনার জন্য দায়ীদের বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে কোনো আপত্তি নেই বলে আশ্বস্ত করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত লি জিমিং।

বৃহস্পতিবার সকালে সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এবিএম আমিন উল্লাহ নূরীর সাথে সৌজন্য সাক্ষাতে রাষ্ট্রদূত এ মন্তব্য করেন।

লি জিমিং সোমবার উত্তরায় ঢাকা বিআরটি প্রকল্পের গার্ডার দুর্ঘটনায় প্রাণহানির ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করেন এবং আহতদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেন বলে বিভাগের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

তিনি বলেন, সড়ক ও জনপথ বিভাগের ঢাকা বিআরটি প্রকল্পের ঠিকাদারের একটি উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল কোম্পানির পক্ষে তদন্ত করতে চীন থেকে বাংলাদেশে এসেছে।

তিনি আরো বলেন, প্রতিনিধিদল সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের গঠিত তদন্ত কমিটিকে প্রয়োজনীয় সহায়তা দিতে প্রস্তুত রয়েছে।

কমিটিকে আগামী সাত দিনের মধ্যে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে বলে সচিব জানান।

প্রতিবেদনের সুপারিশ অনুযায়ী কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

সোমবার বিআরটি প্রকল্পের গার্ডারটি উত্তরার জসিম উদ্দিন রোডের কাছে একটি গাড়ির ওপর খসে পড়ে। এতে রুবেল (৫০), ফাহিমা (৪০), তার বোন ঝর্ণা (২৮) এবং ঝর্ণার দুই সন্তান জান্নাত (৬) ও জাকারিয়া (২) গার্ডারের নিচে পড়া গাড়ির ভেতরে পিষ্ট হয়।

সৌভাগ্যবশত, নিহত রুবেলের ছেলে হৃদয় (২৬) ও তার স্ত্রী রিয়া মনি (২১) এ দুর্ঘটনায় মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষা পান।

একই দিন দুর্ঘটনার তদন্তে ছয় সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়।

কমিটির প্রধান করা হয়েছে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব নীলিমা আক্তারকে। আগামী দুই দিনের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে প্যানেলকে।

মঙ্গলবার সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব বলেন, উত্তরা ট্র্যাজেডির জন্য ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান চায়না গেঝুবা গ্রুপ কোম্পানি লিমিটেড দায়ী বলে তদন্তকারী সংস্থাটি খুঁজে পেয়েছে।

সূত্র : ইউএনবি

বিডিসংবাদ/এএইচএস