চাঁদাবাজি, দুর্নীতি ও নিয়োগ বাণিজ্য বন্ধে জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করা হবে : পরিকল্পনা মন্ত্রী

পরিকল্পনা মন্ত্রী মেজর জেনারেল (অবঃ) আব্দুস সালাম এমপি বলেছেন, চাঁদাবাজি, দুর্নীতি ও নিয়োগ বাণিজ্য বন্ধে জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করা হবে।
তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের প্রতিশ্রুতি ছিল একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সংবিধানের ধারা অনুযায়ী একটি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ নির্বাচন অনেকটা চ্যালেঞ্জিং ছিল। এখন প্রধান কাজ হচ্ছে চাঁদাবাজি, দুর্নীতি ও নিয়োগ বাণিজ্য বন্ধ করে উন্নত দেশ গড়ে তোলা। নির্বাচন নিয়ে বিদেশি কোনো মিডিয়াতে নেতিবাচক সংবাদ পরিবেশিত হয়নি। এটি তুমুল প্রতিযোগিতামূলক নির্বাচন ছিল।
আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে নান্দাইল চন্ডীপাশা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় খেলার মাঠে তাঁকে দেয়া গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
নান্দাইল উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম শাহানের সভাপতিত্বে গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক চৌধুরী স্বপন, আওয়ামী লীগ নেত্রী ওয়াহিদা হোসেন রূপা, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আজহারুল ইসলাম মঞ্জু, চন্ডিপাশা ইউপি চেয়ারম্যান শাহাব উদ্দিন ভূইয়া, গাংগাইল ইউপি চেয়ারম্যান এড. আসাদুজ্জামান নয়ন, এডভোকেট হাবিবুর রহমান ফকির, আলহাজ্ব জালাল উদ্দিন মাস্টার, সাইদুর রহমান প্রমুখ।
মেজর জেনারেল (অবঃ) আব্দুস সালাম আরো বলেন, নান্দাইলের গ্রামীণ রাস্তাঘাট, বিদ্যুৎখাত, শিক্ষা ব্যবস্থা, চিকিৎসা সেবা, সামাজিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা অবিলম্বে জোরদার করা হবে। এখন থেকে সাংগঠনিক সকল কার্যক্রম নিয়মতান্ত্রিকভাবে পরিচালিত হবে। কোন ধরণের অনিয়ম যেন না হয় হয় সে জন্য দলের নেতাকর্মীদের সজাগ থাকার আহবান জানান তিনি।
বিডিসংবাদ/এএইচএস