চীনের সাবমেরিন নামানো হলো ভারত মহাসাগরে

সিকিম সীমান্ত নিয়ে চীন-ভারত দু’দেশের সম্পর্ক ক্রমাগত অবনতির দিকে। এরই মধ্যে ভারত মহাসাগরে ঘোরাফেরা করতে দেখা যাচ্ছে চীনের সাবমেরিন। এর আগে দোকলাম তরাই অঞ্চল নিয়ে ভারত ও চীন সীমান্তে উত্তেজনা বেশ চরমে ওঠে।

দু’তরফের সীমান্তেই প্রায় ৩ হাজার সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। এরকম একটি পরস্থিতিতে চিন ভারতে স্মরণ করিয়ে দেয়, ২৯৬২ সালের যুদ্ধের কথা। বেইজিং-এর পক্ষ থেকে বার্তা আসে, ‘ভারত যেন ১৯৬২ সালের যুদ্ধ থেকে শিক্ষা নেয়। ‘ অন্যদিকে , ভারতীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী পাল্টা জবাবে জানান, যে, ‘ভারত এখন আর ১৯৬২ সালের ভারত নেই’।

এদিকে, এই সাবমেরিনগুলির দিকে ক্রমাগত কড়া নজর রেখে চলেছে ভারতীসা নৌবাহিনী। ভারতের নজরদারির কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে ভারতীয় স্যাটালাইট রুক্মিনী ( জি স্যাট ৭)কে। জানা যাচ্ছে গত সপ্তাহে চীনের তথ্য সংগ্রহকারী জাহাজ হাইউইংজিং, বঙ্গোপসাগরে মার্কিন-জাপান-ভারত নৌশিবিরর গতিবিধি লক্ষ্য করে গিয়েছে।

উল্লেখ্য, ভুটানের দোকলাম তরাইয়ের মধ্য দিয়ে চীন একটি রাস্তা নির্মণের প্রকল্প নেয়। যে কাজে ভুটেনর পাশপাশি বাধা দেয় ভারতও। ভুটানের ভুখণ্ডের মধ্যে দিয়ে চীন কীভাবে রাস্তা নির্মাণ করতে পারে, তা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। আর তার ফলেই ভারত-চীন সংঘাত জোরদার হয়। ভারতীয় সেনার ২ টি বাঙ্কার লক্ষ্যে করে সিকিম সীমান্তে গুলি চালায় চীনের সেনাবাহিনী। তবে চীন দাবি করেছে, ওই এলাকা তাদের এবং তা নিয়ে কোনো বিরোধ নেই