জনগণ ভোট বিপ্লবের মাধ্যমে জনসম্পৃক্ততাহীন আন্দোলনের জবাব দিবে : পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদ

পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের নেতৃবৃন্দ আজ এক আলোচনা সভায় বলেছেন, জনগণ ভোট বিপ্লবের মাধ্যমে জনসম্পৃক্ততাহীন আন্দোলনের জবাব দিবে।
আজ শনিবার রাজধানীর রমনায় পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের উদ্যোগে ‘নির্বাচন-গণতন্ত্র-নাশকতা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় নেতৃবৃন্দ একথা বলেন।
বক্তারা বলেন, বিএনপি-জামায়ত গণতন্ত্রে বিশ্বাসী নয় বলেই দেশে অগ্নি সন্ত্রাস ও অরাজকতা সৃষ্টির মাধ্যমে সংসদ নির্বাচন বানচালের অপপ্রচার করছে। জনগণের ভোটের অধিকার কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে। মহান মুক্তিযুদ্ধের আদর্শের ধারক ও বাহক বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ বাংলাদেশের গণতন্ত্র রক্ষায় অতীতের ন্যায় দেশের জনগণের পাশে ছিল ভবিষ্যতে থাকবে।
পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের সিনিয়র প্রেসিডিয়াম সদস্য এডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ূনের সভাপতিত্বে সভার প্রারম্ভে লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের মহাসচিব প্রকৌশলী মো. শাহাদাত হোসেন শীবলু।
এসময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান, গোলাম কুদ্দুস, অধ্যাপক ড. ইঞ্জিনিয়ার মো. হাবিবুর রহমান, ম. হামিদ, ড. অধ্যাপক হান্নানা বেগম, ডা. রোকেয়া সুলতানা, ইঞ্জিনিয়ার নূরুল হুদা, এডভোকেট মোখলেসুর রহমান বাদল, অধ্যাপক ড. নিজামুল হক ভূঁইয়া, সাংবাদিক শ্যামল দত্ত, এডভোকেট আবদুল নূর দুলাল, বীর মুক্তিযোদ্ধা ইঞ্জিনিয়ার মো. নূরুজ্জামান, ইঞ্জিনিয়ার এস. এম. মনজুরুল হক মঞ্জু, অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান মিলন, সোহেল হায়দার চৌধুরী, কৃষিবিদ খাইরুল আলম প্রিন্সসহ দেশের বরেণ্য পেশাজীবী-বুদ্ধিজীবী নাগরিকবৃন্দ।
আলোচনা সভা শেষে উপস্থিত বাংলাদেশের জাতীয়, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও নাগরিক সংগঠনের বিশিষ্ট নেতৃবৃন্দ এবং দেশের বরেণ্য পেশাজীবী-বুদ্ধিজীবী নাগরিকদের অংশগ্রহণে আইইবি সদর দফতরের সামনে থেকে শাহবাগ অভিমুখে র‌্যালি বের হয়।
বিডিসংবাদ/এএইচএস