জাতিসংঘ রোহিঙ্গাদের ফেরা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছে,এটি সরকারের চরম ব্যর্থতাঃ রিজভী

বিডিসংবাদ অনলাইন ডেস্কঃ  বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী সরকারের সমালোচনা করে বলেছেন, ওবায়দুল কাদের সাহেবরা জাতীয় ঐক্য চাইবেন না, কারণ তারা রোহিঙ্গা সঙ্কটের সমাধান চান না। রোহিঙ্গা নিয়ে রাজনীতি করে তারা আরো বেশ কিছুটা সময় ক্ষমতায় টিকে থাকা যায় কিনা সেই অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। ‘রোহিঙ্গা সমস্যা মোকাবিলায় বিএনপি না থাকলেও সমস্যা নেই। কারণ এই ইস্যুতে এখন জাতীয় ঐক্য হয়ে গেছে।’ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় আজ বৃহস্পতিবার সকালে এক সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব বলেন। এছাড়া বাংলাদেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব, দেশের রাজনীতি, বিরোধী দল ও দলের নেতানেত্রীসহ নানা বিষয়ে অলীক মনগড়া, ভিত্তিহীন কাব্যকাহিনী রচনা করে দেশে-বিদেশে অপপ্রচার দীর্ঘদিন ধরে সুবীর ভৌমিক নামে এক বিদেশী সাংবাদিক। তার এই অপপ্রচার ও মিডিয়া সন্ত্রাস চালাতে ওই বিদেশী সাংবাদিকদের সাথে দেশীয় কিছু সাংবাদিকও জড়িত বলে মন্তব্য করে রিজভী বলেন, সুবীর ভৌমিক নিজ দেশসহ আঞ্চলিক বিভিন্ন গণমাধ্যমে কাজ করেন। কখনো বাংলাদেশে এসে অথবা নিজ দেশ থেকে বাংলাদেশের বিভিন্ন ইন্সটিটিউশন, বিরোধী নেতানেত্রীদের বিরুদ্ধে অবাস্তব ষড়যন্ত্রগাঁথা গল্প তৈরি করে বাংলাদেশসহ বিশ্বব্যাপী তা প্রচার করছেন। দেশ-বিদেশের মানুষের মধ্যে একটা ভয়ানক বিভ্রান্তি তৈরি করাই এই অপপ্রচারের উদ্দেশ্য।

নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, হাবিব উন নবী খান সোহেল, হাবিবুল ইসলাম হাবিব, মীর সরফত আলী সপু, অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ।

রুহুল কবির রিজভী লিখিত বক্তব্যে বলেন, বর্তমান ভোটারবিহীন সরকার গত ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি একতরফা নির্বাচনের মাধ্যমে বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে এখন রোহিঙ্গা ইস্যুটাকে কাজে লাগানোর চেষ্টা করছে। রোহিঙ্গাদের এই বিশাল জনগোষ্ঠীকে কুটনৈতিক উপায়ে মিয়ানমারে ফেরত পাঠানোর কোনো উদ্যোগ গ্রহণে তৎপর নয় সরকার। জাতিসংঘ রোহিঙ্গাদের ফেরা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছে। এটা সরকারের চরম ব্যর্থতা।