ডিজিটাল আইন বাতিল ও রুহুল আমিন গাজীর মুক্তি দাবি বিএফইউজের

বিডিসংবাদ অনলাইন ডেস্কঃ

মুক্ত সাংবাদিকতা ও মত প্রকাশের স্বাধীনতার অন্তরায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পুরোপুরি বাতিল ও দীর্ঘ দিন কারাবন্দী সাংবাদিক নেতা রুহুল আমিন গাজী ও সিনিয়র সাংবাদিক সাদাত হোসাইনের অবিলম্বে মুক্তির দাবি জানিয়েছে সাংবাদিকদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে)।

সংগঠনটির নির্বাহী পরিষদের সভা থেকে এ দাবি জানানো হয়। এছাড়া ফটো সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজল, কার্টুনিস্ট কিশোরসহ সাংবাদিক ও পেশাজীবীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহারের জোর দাবি জানানো হয়েছে সংগঠনটির পক্ষ থেকে।

জাতীয় প্রেস ক্লাবে বিএফইউজের নিজস্ব কার্যালয়ে শনিবার দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় গৃহীত প্রস্তাবে এ দাবি জানানো হয়েছে বলে রোববার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়।

সভায় গণমাধ্যমের ওপর প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ সব ধরনের চাপ ও হুমকি বন্ধ, ঢাকাসহ সারাদেশে সাংবাদিকদের গণহারে চাকরিচ্যুতি, অব্যাহত হামলা, মামলা ও হয়রানি বন্ধের জোর দাবি জানানো হয়েছে।

বিএফইউজের সভাপতি এম আবদুল্লাহর সভাপতিত্বে ও মহাসচিব নুরুল আমিন রোকনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় নির্বাহী পরিষদের কর্মকর্তা ও বিভিন্ন অঙ্গ ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

সভায় গৃহীত প্রস্তাবে বিএফইউজের সাবেক সভাপতি রুহুল আমিন গাজী ও দৈনিক সংগ্রামের বার্তা সম্পাদক সাদাত হোসাইনকে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় দীর্ঘ প্রায় পাঁচ মাস আটকে রাখায় ক্ষোভ প্রকাশ করে অবিলম্বে তাদের মুক্তির দাবি জানানো হয়েছে।

কারাগারে লেখক মুশতাক আহমদের মৃত্যুতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে ঘটনার বিচার বিভাগীয় নিরপেক্ষ তদন্ত দাবি করেছে বিএফইউজের নির্বাহী পরিষদ। পাশাপাশি কার্টুনিস্ট কিশোরের ওপর অজ্ঞাত স্থানে নির্যাতনের তীব্র নিন্দা জানান বিএফইউজে নেতারা। এ ছাড়াও ফটো সাংবাদিক কাজলের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে চার্জশিট দাখিলের প্রতিবাদ জানিয়ে সাংবাদিক, সম্পাদক, লেখক ও পেশাজীবীদের বিরুদ্ধে হয়রানিকমূলক মামলা প্রত্যারের দাবি জনিয়েছে নির্বাহী পরিষদ।

সভায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের যথেচ্ছ অপব্যবহার করে স্বাধীন সাংবাদিকতাকে বাধাগ্রস্ত করা ও মত প্রকাশের সাংবিধানিক অধিকার হরণের বিরুদ্ধে জনমত গড়ে ওঠার পরও কালো আইনটি বহাল রাখায় বিস্ময় প্রকাশ করে অবিলম্বে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনটি সম্পূর্ণ বাতিলের দাবি জানানো হয়।

সভায় দেশের গণমাধ্যমজুড়ে অস্থিরতা, গণহারে চাকরিচ্যুতি ও প্রভাবশালী মহলের অব্যাহত চাপ, সাংবাদিক হত্যা, নির্যাতন, নিপীড়ন বাড়ার প্রেক্ষাপটে সাংবাদিক সমাজের ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিরোধ গড়ে তোলার ওপর জোর দেয়া হয়।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহ-সভাপতি মোদাব্বের হোসেন, রাশিদুল ইসলাম ও ওবায়দুর রহমান শাহীন, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কাদের গনি চৌধুরী, বিএফইউজে’র সহকারী মহাসচিব সহিদুল্লাহ মিয়াজী, কোষাধ্যক্ষ মুহাম্মদ খায়রুল বাশার, সাংগঠনিক সম্পাদক খুরশীদ আলম, দফতর সম্পাদক তোফায়ের হোসেন, প্রচার সম্পাদক মাহমুদ হাসান, নির্বাহী সদস্য আবদুস সেলিম, মো: আবু বকর, একেএম মোহসীন, মো: জাকির হোসেন, সাংবাদিক ইউনিয়ন বগুড়ার সভাপতি মির্জা সেলিম রেজা ও সাধারণ সম্পাদক গণেশ দাস, সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের সাধারণ সম্পাদক আকরামুজ্জামান, কুমিল্লা জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আবদুল জলিল ভূঁইয়া, সাংবাদিক ইউনিয়ন দিনাজপুরের সভাপতি মাহফিজুল ইসলাম রিপন, সাংবাদিক ইউনিয়ন ময়মনসিংহের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম প্রমুখ।

সভায় সাংবাদিক ইউনিয়ন বগুড়ার পুনঃনির্বাচিত সভাপতি মির্জা সেলিম রেজা ও সাধারণ সম্পাদক গণেশ দাস ও সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের পুনঃনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক আকরামুজ্জমানকে বিএফইউজের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা ও ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়।
প্রেস বিজ্ঞপ্তি

বিডিসংবাদ/এএইচএস