ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয় ও বাংলাদেশ শিল্প কারিগরি সহায়তা কেন্দ্রের মধ্যে সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠিত

শিল্প ও সেবাখাতে উদ্যোক্তা উন্নয়ন, প্রশিক্ষণের মাধ্যমে প্রযুক্তি ও কারিগরি দক্ষতার মানোন্নয়ন এবং শিক্ষার্থীদের জন্য ইন্টার্নিশিপ ও অন্যান্য শিক্ষাবিনিময় কার্যক্রম পরিচালনার লক্ষ্যে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি (ডিআইইউ) ও বাংলাদেশ শিল্প কারিগরি সহায়তা কেন্দ্রের (বিটাক) মধ্যে আজ (৮ জুন ২০২২) এক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটি ক্যাম্পাস, আশুলিয়ায় আয়োজিত উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ডিআইইউ’র উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম. লুৎফর রহমান। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিটাকের মহাপরিচালক আনোয়ার হোসেন চৌধুরী। অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডিআইইউ’র উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. এস. এম. মাহবুবুল হক মজুমদার ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারারমমিনুল হক মজুমদার। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ডিআইইউ’র অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার ড. নাদির বিন আলী। বিটাকের প্রযুক্তি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের (টিটিআই) পরিচালক ড. ইহসানুল করিম ও ডিআইইউর ইন্ডাস্ট্রিয়াল ইনোভেশন সেন্টারের (আইআইসি) পরিচালক আবু তাহের খান নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তি পত্রে স্বাক্ষর করেন। অনুষ্ঠানে ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের প্রধান মোঃ আরিফ হাসান, ডিপার্টমেন্ট অব ইনোভেশন এন্ড এন্ট্রাপ্রেনিউরশীপ এর বিভাগীয় প্রধান মোঃ কামরুজ্জামান, ইলেক্ট্রিক্যাল এন্ড ইলেক্ট্রনিক্স ইঞ্জিনয়িারিয় বিভাগের সহযোগীবিভাগীয় প্রধান দারা আবদুস সাত্তারসহ বিটাক ও ডিআইইউর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও অনুষদ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিটাকের মহাপরিচালক আনোয়ার হোসেন চৌধুরী উল্লেখ করেন, সরকারি ও বেসরকারি খাতের মধ্যে অংশীদারিত্বমূলক কার্যক্রমকে জোরদার করার লক্ষ্য নিয়েই মূলত এ সমঝোতা স্মারক করা হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে শিল্প সহায়তা কার্যক্রমে গতিশীলতা বৃদ্ধি পাওয়ার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের কারিগরি জ্ঞানেরও ব্যাপক সম্প্রসারণ ঘটবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, ডিআইইউ শিক্ষার্থীদের জন্য কারিগরি প্রশিক্ষণ, ইর্ন্টানশিপ সুবিধা, ল্যাবরেটরি জ্ঞান ইত্যাদি প্রদনের ব্যাপারে বিটাক সর্বাত্মকভাবে প্রতিশ্রতিবদ্ধ।

সভাপতির বক্তব্যে ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম. লুৎফর রহমান বলেন, এ বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি বিশেষ বৈশিষ্ট্য হচ্ছে এর শিক্ষার্থীদেরকে উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে ওঠতে উৎসাহ দানের পাশাপাশি আনুষঙ্গিক সহায়তা দিয়ে বাস্তব ক্ষেত্রে তাদেরকে উদ্যোক্তা হিসেবে দাঁড় করিয়ে দেয়া। আর সে লক্ষ্যেই ডিআইইউ সম্প্রতি এর অধীনে একটি ইন্ডাস্ট্রিয়াল ইনোভেশন সেন্টার (আইআইসি) স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। স্বাক্ষরিত সমঝোতা স্মারকের আওতায় আইআইসি এবং বিটাকের প্রযুক্তি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট (টিটিআই) গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

ডিআইইউর উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. এস. এম. মাহবুবুল হক মজুমদার বলেন, এ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়নের পাশাপাশি এর শিক্ষার্থীদেরকে দক্ষ পেশাজীবী হয়ে ওঠতেও পরামর্শ ও সহায়তা প্রদান করছে। এ ব্যাপারে তিনি ডিআইইউর ক্যারিয়ার ডেভেলপমেন্ট সেন্টারের (সিডিসি) ভূমিকার বিষয়টিও তুলে ধরেন।
অনুষ্ঠান শেষে বিটাক ও ডিআইইউর কর্মকর্তারা ইন্ডাস্ট্রিয়াল ইনোভেশন সেন্টারের নির্মাণাধীন এলাকা পরিদর্শন করেন। উল্লেখ্য, প্রায় দেড় লক্ষ বর্গফুট জমির উপর স্থাপনাধীন বহুতল বিশিষ্ট এ ইনোভেশন সেন্টারে শিল্পস্থাপনের জন্য আনুষঙ্গিক অবকাঠামো এবং পণ্য প্রদর্শন ও বিপণনের ব্যবস্থা থাকবে।
ক্যাপশনঃ ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি (ডিআইইউ) ও বাংলাদেশ শিল্প কারিগরি সহায়তা কেন্দ্রের (বিটাক) মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করছেন বিটাকের প্রযুক্তি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের (টিটিআই) পরিচালক ড. ইহসানুল করিম ও ডিআইইউর ইন্ডাস্ট্রিয়াল ইনোভেশন সেন্টারের (আইআইসি) পরিচালক আবু তাহের খান। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম. লুৎফর রহমান, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. এস. এম. মাহবুবুল হক মজুমদার, ট্রেজারার মমিনুল হক মজুমদার এবং বিটাকের মহাপরিচালক আনোয়ার হোসেন চৌধুরী উপস্থিথ ছিলেন।