দেশের উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে সকল ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে এগিয়ে যেতে হবে : সরকারি দল

বিডিসংবাদ অনলাইন ডেস্কঃ

রাষ্ট্রপতির ভাষণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বাঙালি জাতির অগ্রযাত্রা এবং আগামীর অভিযাত্রার একটি সুস্পষ্ট পথনির্দেশিকা। দেশের এই অগ্রগতির ধারা অব্যাহত রাখতে সকল ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে আগামীর বাংলাদেশ বিনির্মাণে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।
সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণ সম্পর্কে আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে আজ সরকারি দলের সদস্যরা এ কথা বলেন। তারা বলেন, দেশের জনগণ ঐক্যবদ্ধভাবে যে কোন ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় প্রস্তুত রয়েছে।
গত ৫ জানুয়ারি সংবিধান অনুযায়ী বছরের প্রথম অধিবেশনের প্রথম দিনে সংসদে রাষ্ট্রপতি ভাষণ দেন। রীতি অনুযায়ী এ ভাষণ সম্পর্কে চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী ধন্যবাদ প্রস্তাব উত্থাপন করেন। এ প্রস্তাব সমর্থন করেন সরকারি দলের সদস্য শহীদুজ্জামান সরকার।
ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর আলোচনার চতুর্থ দিনে আজ অংশ নেন সরকারি দলের অসীম কুমার উকিল, আমিরুল আলম মিলন, মোহাম্মদ সাহিদুজ্জামান, শহীদুল ইসলাম বকুল, আরমা দত্ত, শামসুন নাহার, সৈয়দা জোহরা আলাউদ্দিন, মোসাম্মৎ তাহমিনা বেগম, বদরুদ্দোজা মো. ফরহাদ হোসেন, জাতীয় পার্টির রুস্তম আলী ফরাজী এবং ওয়ার্কার্স পার্টির লুৎফুন নেসা খান।
আলোচনায় অংশ নিয়ে সরকারি দলের সদস্যরা বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন বিএনপির সহ্য হচ্ছে না। তাই তারা দেশে নৈরাজ্য সৃষ্টি করে পেছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় আসতে চায়। তারা বাংলাদেশকে একটি অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করতে চায়। তারা দেশকে তলাবিহীন দেশ হিসেবে দেখতে চায়। তাদের সময়ের অর্থমন্ত্রী সাইফুর রহমান বলতেন- দেশ উন্নত হলে বিদেশী সাহায্য পাওয়া যাবে না। তাই তারা দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করে উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করতে চায়। কিন্তু এ চেষ্টা কখনো সফল হবে না। জনগণ তা ব্যর্থ করে দিবে। তাদের এই ষড়যন্ত্র আর চক্রান্তকে মোকাবেলা করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ইস্পাত কঠিন ঐক্য গড়ে তুলতে হবে। দেশের জনগণকে সাথে নিয়ে তাদের ষড়যন্ত্রকে নসাৎ করে দিতে হবে।
তারা বলেন, শেখ হাসিনা দেশের দায়িত্ব নেয়ার পর মুক্তিযুদ্ধের চেতনা পুনঃপ্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। দেশ আবার বঙ্গবন্ধুর আদর্শে পরিচালনা করে অল্প সময়ের মধ্যে বাংলাদেশকে বিশ্বে উন্নয়নের মডেল হিসাবে পরিণত করা সম্ভব হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর হত্যার বিচার সম্পন্ন করা হয়েছে। সাথে সাথে আন্তর্জাতিক মানবতা বিরোধী অপরাধ আইন করে ’৭১ এর ঘাতকদের বিচার করে শাস্তি নিশ্চিত করা হচ্ছে।
সরকারি দলের সদস্যরা বলেন, শেখ হাসিনা ও তার সুযোগ্য ছেলে সজীব আহমেদ জয়ের হাত ধরে বাংলাদেশ আজ ডিজিটাল বাংলাদেশে রূপান্তরিত হয়েছে। মহাকাশে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপণ করে বিশ্বে স্যাটেলাইট ক্লাবের সদস্য হিসাবে বাংলাদেশকে প্রতিষ্ঠিত করা হয়েছে। এছাড়া, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২ উৎক্ষেপণের প্রস্তুতি চলছে।

বিডিসংবাদ/এএইচএস

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here