দেশে জুলাই-ডিসেম্বরে রেমিট্যান্স এসেছে ১০.৪৯ বিলিয়ন ডলার

বিডিসংবাদ অনলাইন ডেস্কঃ

বাংলাদেশ ২০২২ সালের ডিসেম্বরে ব্যাংকিং চ্যানেলের মাধ্যমে ১ দশমিক ৭০ বিলিয়ন ডলারের রেমিট্যান্স পেয়েছে, যা আগের বছরের একই মাসের তুলনায় ৪ দশমিক ২৩ শতাংশ বেশি।

রোববার প্রকাশিত বাংলাদেশ ব্যাংকের একটি হালনাগাদ প্রতিবেদন অনুসারে নভেম্বরে, প্রবাসীরা আইনি চ্যানেলের মাধ্যমে দেশে ১ দশমিক ৫০ বিলিয়ন ডলার পাঠিয়েছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক প্রণোদনা এবং মার্কিন ডলারের উচ্চ বিনিময় হার অফার করে ব্যাংকিং চ্যানেলের মাধ্যমে রেমিট্যান্স প্রবাহ বাড়ানোর চেষ্টা করছে।

রেমিট্যান্স প্রবাহের পর্যালোচনায় দেখা গেছে, ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর) মোট ১০ দশমিক ৪৯ বিলিয়ন ডলার রেমিট্যান্স পেয়েছে দেশ।

আগের অর্থবছরের একই সময়ে প্রবাসীরা ১০ দশমিক ২৪ বিলিয়ন ডলারের রেমিট্যান্স পাঠিয়েছিল। সে অনুযায়ী চলতি অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসে বাংলাদেশ ২৮৭ মিলিয়ন ডলার বেশি রেমিট্যান্স পেয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র মেসবাউল হক ইউএনবিকে বলেন, রেমিট্যান্স প্রবাহ বাড়াতে মার্কিন ডলারের বিনিময় হার বাড়িয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

তিনি বলেন, রেমিট্যান্সের জন্য ২ দশমিক ৫ শতাংশ ঝামেলামুক্ত প্রণোদনা ছাড়াও, বেশ কয়েকটি ব্যাংক বৈদেশিক মুদ্রা আকৃষ্ট করার জন্য অতিরিক্ত প্রণোদনাও দিয়েছে।

আইনি চ্যানেলে রেমিট্যান্স পাঠানোর জন্য ব্যাংকগুলো কোনো চার্জ বা ফি কাটবে না বলেও জানান তিনি।

বাংলাদেশ ব্যাংকের গবেষণায় দেখা গেছে, প্রবাসী আয়ের ৪০ শতাংশের বেশি দেশে পাঠানো হয় হুন্ডি বা অনানুষ্ঠানিক মাধ্যমে।

সূত্র : ইউএনবি

বিডিসংবাদ/এএইচএস