নবীগঞ্জে দুই প্রভাবশালীর রোষানলে কয়েকটি নিরীহ পরিবার!

প্রধানমন্ত্রীসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ

নবীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ নবীগঞ্জে দুই প্রভাবশালী লোকের রোষানলে পড়েছেন কয়েকটি পরিবার। তাদের অত্যাচার নির্যাতনে অতিষ্ট হয়ে প্রধানমন্ত্রীসহ সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করেছেন মোঃ আব্দুল মতলিব মিয়া নামের লোক।

অভিযোগের প্রেক্ষিতে প্রকাশ, উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নের আউশকান্দি গ্রামের মৃত তোতা মিয়ার পুত্র ও তাদের লোকদের স্বত্ব ভুমি আউশকান্দি মৌজাস্থ ১ নং খতিয়ানের ৭৭১ দাগের ভুমিতে তারা বাড়িঘর নির্মাণ করে আসছেন মোঃ আব্দুল মতলিব গংদের লোকজন। ওই ভূমির দিকে কু-দৃষ্টি পড়ে একই উপজেলার  আউশকান্দি ইউনিয়নের বেতাপুর গ্রামের মৃত মনির উদ্দিনের পুত্র প্রভাবশালী দুই সহোদর বুলবুল আমীন ও সুহুল আমীনের।

তারা ঐক্যজোঠ হয়ে ফঁন্দি করতে থাকেন কিভাবে আব্দুল মতলিব গংদের এ স্থান থেকে উচ্ছেদ করা যায়। এমনকি ইতিপুর্বে ও আবদুল মতলিবের লোকদের সাথে বুলবুল আমীন ও সুহুল আমীনের ভাড়াটিয়া ফুরুক নামের লোক হামলার ঘটনায় মামলায় দু’বছরের সাজা প্রদান করে আদালত। কিন্তু আবদুল মতলিব গংদের পিছু ছাড়েননি দুই ভাই বুলবুল আমীন ও সুহুল আমীন।

ইদানিং তারা আরো বেপরোয়া হয়ে উঠলে আব্দুল মতলিব মিয়া গংদের লোকজন প্রধানমন্ত্রীসহ সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করেন। আরো জানা গেছে, হুমকি দাতা প্রভাবশালী বুলবুল আমীন ও সুহুল আমীন তারা উলুকান্দি মৌজাস্থ সরকার বাহাদুরের ১ নং খতিয়ানের ১,২,৩,৪ নং দাগের প্রায় ৫ একর  ভুমি প্রভাব খাটিয়ে দখল করে তাতে ব্রিক ফিল্ড গড়ে তোলেছেন। এবং পাকা দালান বাড়ি নির্মান করে সরকার বাহাদুরের রাজস্ব ক্ষতি সাধন করে আসছেন।

এ নিয়ে বিগত ২০০৭ সালের ৬ ই মার্চ  আবদুল মতলিব ও জুতি মিয়া মিলে জেলা প্রশাসক হবিগঞ্জ বরাবর অভিযোগ দায়ের করেন। কিন্তু তারা প্রভাবশালী হওয়ায় অবশেষে ওই অভিযোগ কাজের কাজ কিছুই হয়নি। ইদানিং প্রভাবশালী দুই ভাই এলাকার কুখ্যাত লোকদের নিয়ে গড়ে তোলেছেন ত্রাসের রাজত্ব বলে এলাকায় প্রচার রয়েছে। এলাকার লোকজন মনে করেন দেশের সরকারের সুদৃষ্টিতে তারা পাবেন ন্যায্য বিচার।