নাপোলির স্বপ্ন ভেঙে সেমিতে এসি মিলান

বিডিসংবাদ অনলাইন ডেস্কঃ

নাপোলিকে হতাশ করে দীর্ঘ ১৬ বছর পর চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ চারে এসি মিলান। শেষ আটের দ্বিতীয় লেগে অবশ্য জয় পায়নি তারা, প্রথম লেগে ১-০ গোলে জয় থাকায় মঙ্গলবার ১-১ গোলে ড্র করেও সেমিফাইনালে পা রেখেছে ইতালিয়ান ক্লাবটি। বিপরীতে চ্যাম্পিয়নস লিগ সেমিফাইনাল খেলার স্বপ্ন দীর্ঘ হলো নাপোলির।

প্রথম লেগে ১-০ গোলে পিছিয়ে থাকায় আজ শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ফুটবলে মন দেয় নাপোলি। তবে তাতেই বাঁধে বিপত্তি, ২১তম মিনিটে অযথা ফাউল করে এসি মিলানকে উপহার দিয়ে বসে পেনাল্টি। যদিও জিরুদের স্পট কিক দারুণ নৈপুণ্যে ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক আলেক্স মেরেত।

২৭তম মিনিটে আবারও জিরুদকে হতাশ করেন মেরেত। ডি-বক্সে জটলার মধ্যে একজনকে কাটিয়ে ফরাসি ফরোয়ার্ডের নেওয়া শট কোনোমতে পা দিয়ে ফেরান ইতালিয়ান গোলরক্ষক। তবে লক্ষ্যে তৃতীয় শট নিয়ে আর ব্যর্থ হননি জিরুদ। ৪৩তম মিনিটে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন এই ফরাসি ফরোয়ার্ড।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে অবশ্য দারুণ একটা আক্রমণ সাজান কাভারাস্কেইয়া। কিন্তু কাছাকাছি জায়গা থেকে তাঁর নেওয়া শট শেষ পর্যন্ত জালের দেখা পায়নি। এরপর দুই দলই চেষ্টা করে যাচ্ছিল, কিন্তু গোল পাচ্ছিল না কোনো দল। আক্রমণ পাল্টা আক্রমণ চলতে থাকে মুহুর্মুহু।

৮০তম মিনিটে মিলানের ডি-বক্সে ফিকায়ো তোমোরির হাতে বল লাগলে সুবর্ণ সুযোগ পেয়ে যায় নাপোলি। কিন্তু জর্জিয়ান ফরোয়ার্ড খাভিচা কাভারাৎসখেলিয়ার পেনাল্টি শট ঝাঁপিয়ে রুখে দেন গোলরক্ষক মাইক মিয়াঁ। আর তাতেই যেন সেমিফাইনাল স্বপ্ন ভেঙে যায় নাপোলির৷ অন্যথায় হয়তো গল্পটা অন্যরকম হলে হতেও পারতো!

কেননা যোগ করা সময়ের তৃতীয় মিনিটে হেডে নাটকীয় এক গোল করেন নাইজেরিয়ার স্ট্রাইকার ওসিমহেন। কিন্তু খাভিচার সেই পেনাল্টি মিসের কারণে শেষ পর্যন্ত এই গোল কেবল সান্ত্বনাসূচক গোলই হয়েই থাকল।

বিডিসংবাদ/এএইচএস