পাকিস্তানে দুই ট্রেনের সংঘর্ষ, নিহত ৩২

বিডিসংবাদ অনলাইন ডেস্কঃ

পাকিস্তানে দ্রুতগামী দুটি যাত্রীবাহী ট্রেনের সংঘর্ষে কমপক্ষে ৩২ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে ৬৪ জন। দেশটির সিন্ধু প্রদেশের ঘটকি জেলায় সোমবার সকালে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ঘটকি’র এসএসপি উমর তুফাইল নিহতের সংখ্যা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেছেন, নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে।

পাকিস্তান রেল বিভাগের এক মুখপাত্র বলেন, করাচি থেকে সারগোধাগামী মিল্লাত এক্সপ্রেস ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে ‘ডাউন ট্র্যাকে’ শিফট করে। ওই সময় রাওয়ালপিন্ডি থেকে আসা স্যার সৈয়দ এক্সপ্রেস ট্রেনের সঙ্গে এটির সংঘর্ষ বাধে।

ঘটকি জেলার ধরকি শহরে রাইতি রেলস্টেশনের কাছে এ ঘটনা ঘটে।

জেলার এসএসপি উমর তুফায়েল বলেন, মিল্লাত এক্সপ্রেস ট্রেনের ধ্বংসাবশেষে ১৫ থেকে ২০ যাত্রী এখনও আটকা পড়ে আছেন। তাদের উদ্ধারে কর্তৃপক্ষ ভারী যন্ত্রপাতির ব্যবস্থা করছে। ঘটকি, ধরকি, ওবারো ও মিরপুর মাথেলো এলাকার হাসপাতালে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে।

ঘটকির ডেপুটি কমিশনার উসমান আব্দুল্লাহ বলেন, এ ঘটনায় অন্তত ৩০ যাত্রী প্রাণ হারিয়েছেন। আহত হয়েছে ৫০ জনের মতো মানুষ। ট্রেনের বগি উল্টে যাওয়ায় যাত্রীদের উদ্ধারে কর্মকর্তাদের বেগ পেতে হচ্ছে। মৃতের সংখ্যা আরো বাড়ার শঙ্কা রয়েছে।

তিনি বলেন, দুর্ঘটনায় ট্রেনের ১৩ থেকে ১৪টি বগি লাইনচ্যুত হয়। এগুলোর মধ্যে ছয় থেকে আটটি বগি পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে গেছে।

ডেপুটি কমিশনার উসমান আব্দুল্লাহ আরো বলেন, সিন্ধু প্রদেশের রোহরি শহর থেকে উদ্ধার ট্রেন রওনা হয়েছে। ঘটনাস্থলে স্থানীয় প্রশাসন ও উদ্ধারকর্মীরা উপস্থিত আছেন।

তিনি বলেন, ‘এটি অনেক চ্যালেঞ্জিং কাজ। ভারী যন্ত্রপাতির মাধ্যমে আটকে পড়া যাত্রীদের উদ্ধারে সময় লাগবে। জেলায় জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। আহত ব্যক্তিদের চিকিৎসা সহায়তা দিতে মেডিক্যাল ক্যাম্প বসানো হয়েছে।’

সূত্র : দ্য নিউজ

বিডিসংবাদ/এএইচএস