পুতিনের অর্থোডক্স ক্রিসমাস যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব ইউক্রেনের প্রত্যাখ্যান

বিডিসংবাদ অনলাইন ডেস্কঃ

অর্থোডক্স ক্রিসমাস উপলক্ষে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের দেয়া ৩৬ ঘণ্টার যুদ্ধবিরতি প্রস্তাব ইউক্রেন প্রত্যাখ্যান করেছে। তারা বলছে, অধিকৃত ভূখণ্ড থেকে রুশ বাহিনী প্রত্যহার না হওয়া পর্যন্ত কোনো যুদ্ধবিরতি হবে না।

ক্রেমলিন এর আগে জানিয়েছিল যে রুশ অর্থোডক্স চার্চের প্রধান মস্কোর প্যাট্রিয়াচ কিরিলের ক্রিসমাস যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানানোর পর পুতিন শুক্রবার মধ্যরাত থেকে ৩৬ ঘণ্টার যুদ্ধবিরতির নির্দেশ দিয়েছেন।

পুতিন তার নির্দেশে বলেছিলেন, বাস্তবতা হলো, অর্থোডক্স ধর্মে বিশ্বাসী বিপুলসংখ্যক নাগরিক সংঘাতময় এলাকায় থাকায় আমরা ক্রিসমাসের প্রাক্কালে যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানাচ্ছি।

এর জবাবে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেন, ‘ডনবাসে আমাদের অগ্রযাত্রা থামাতে এবং আরো সরঞ্জাম নিয়ে আসার জন্য রাশিয়া যুদ্ধবিরতিকে ব্যবহার করতে চায়।’

ইউক্রেনের এক সিনিয়র কর্মকর্তা রুশ যুদ্ধবিরতির প্রস্তাবটি প্রত্যাখ্যান করে বলেন, রাশিয়া যদি ইউক্রেনের অধিকৃত ভূমি থেকে প্রত্যাহার করে নেয়, তবেই কেবল যুদ্ধবিরতি হতে পারে।

আর পুতিনের যুদ্ধবিরতি প্রস্তাব সম্পর্কে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, এটি আসলে তার যুদ্ধচেষ্টা থেকে একটু দম ফেলার সুযোগ নেয়ার প্রয়াস।

বাইডেন বলেন, ‘তিনি (পুতিন) ২৫ ডিসেম্বর ও নববর্ষের দিনে হাসপাতালে, নার্সারি ও চার্চে বোমা ফেলতে প্রস্তুত ছিলেন। আমি মনে করি, তিনি কিছু অক্সিজেন পাওয়ার চেষ্টা করছেন।’

রুশ অর্থোডক্স চার্চ হলো ইস্টার্ন অর্থোডক্স কমিউনের বৃহত্তম। রাশিয়া ও এর আশপাশের এলাকায় এই ধর্মাবলম্ব প্রায় ১০ কোটি অনুসারী রয়েছে।

সূত্র : আলজাজিরা

বিডিসংবাদ/এএইচএস