বাবর-শাকিলের হাফ-সেঞ্চুরিতে পাকিস্তানের সংগ্রহ ২৭০ রান

বিডিসংবাদ অনলাইন ডেস্কঃ

অধিনায়ক বাবর আজম ও সৌদ শাকিলের জোড়া হাফ-সেঞ্চুরিতে ওয়ানডে বিশ^কাপে নিজেদের ষষ্ঠ ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথমে ব্যাট করে ৪৬ দশমিক ৪ ওভারে ২৭০ রানে অলআউট হয়েছে পাকিস্তান। বাবর ৫০ ও শাকিল ৫২ রান করেন। দক্ষিণ আফ্রিকার স্পিনার তাবরাইজ শামসি নেন ৪ উইকেট ।
চেন্নাইতে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্বান্ত নেয় পাকিস্তান। দক্ষিণ আফ্রিকার পেসার মার্কো জানসেনের তোপে সপ্তম ওভারে ৩৮ রানের মধ্যে দুই ওপেনারকে হারায় পাকিস্তান। আব্দুল্লাহ শফিক ৯ ও ইমাম উল হক ১২ রান করে আউট হন।
শুরুর ধাক্কা সামলে উঠতে সতীর্থদের নিয়ে বড় জুটির গড়ার চেষ্টা করেন বাবর। তৃতীয় উইকেটে মোহাম্মদ রিজওয়ানকে নিয়ে ৪৮ ও চতুর্থ উইকেটে ইফতিখার আহমেদের সাথে ৪৩ রান যোগ করেন বাবর।
বাবর-রিজওয়ানের জুটিতে ভাঙ্গন ধরান দক্ষিণ আফ্রিকার পেসার জেরাল্ড কোয়েৎজি। ২৭ বলে ৩১ রান করা রিজওয়ানকে শিকার করেন তিনি। ২১ রান করা ইফতিখারকে শিকার করে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ব্রেক-থ্রু এনে দেন শামসি।
ইফতিখার ফেরার পর ওয়ানডেতে ওয়ানডেতে ৩১তম হাফ-সেঞ্চুরি করেন ৬৪ বল খেলা বাবর। অর্ধশতক পূর্ন করেই সেখানেই শামসির দ্বিতীয় শিকার হয়ে থামেন বাবর। ৪টি চার ও ১টি ছক্কায় ৬৫ বলে ৫০ রান করেন পাক অধিনায়ক।
১৪১ রানে পঞ্চম ব্যাটার হিসেবে বাবর ফেরার পর উইকেট পতন ঠেকান শাকিল ও শাদাব খান। ষষ্ঠ উইকেটে আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে রানের গতি বাড়ান তারা। হাফ-সেঞ্চুরির জুটি সেঞ্চুরির পথে এগিয়ে যাচ্ছিলো। তবে ৪০তম ওভারে শাদাবকে থামিয়ে জুটি ভাঙ্গেন কোয়েৎজি। ৩টি চার ও ২টি ছক্কায় ৩৬ বলে ৪৩ রান করেন শাদাব।
পরের ওভারে থামেন শাকিল। ৫০ বলে ওয়ানডেতে তৃতীয় অর্ধশতক পূর্ণ করে শামসির তৃতীয় শিকারে পরিনত হন শাকিল। ৭টি চারে ৫২ বলে ৫২ রান করেন শাকিল।
২৪০ রানে সপ্তম ব্যাটার হিসেবে শাকিল আউট হবার পর মোহাম্মদ নাওয়াজের দৃঢ়তায় ৪৬ দশমিক ৪ ওভারে সব উইকেট হারিয়ে ২৭০ রান পর্যন্ত যেতে পারে পাকিস্তান। ১টি চার ও ২টি ছক্কায় ২৪ বলে ২৪ রান করেন নাওয়াজ। এ ম্যাচে ৪৫ রানে শেষ ৫ উইকেট হারায় পাকিস্তান।
দক্ষিণ আফ্রিকার শামসি ১০ ওভারে ৬০ রানে ৪ উইকেট শিকার করেন। জানসেন ৪৩ রানে ৩টি ও কোয়েৎজি ৪২ রানে ২ উইকেট নেন।
বিডিসংবাদ/এএইচএস