বুয়েট ছাত্র ফারদিন হত্যায় মামলা, আসামি বান্ধবী বুশরাও

বিডিসংবাদ অনলাইন ডেস্কঃ

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র ফারদিন নূর পরশের মৃত্যুর ঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন তার বাবা কাজী নূর উদ্দিন রানা।

বৃহস্পতিবার সকালে মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন রামপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম।

মামলায় ফারদিনের বান্ধবী ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির ছাত্রী বুশরাসহ আরও কয়েক জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে।

তিনি বলেন, বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে ফারদিনের বাবা নূর উদ্দিন রানা এ মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় ফারদিনের বান্ধবী ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির ছাত্রী বুশরাসহ আরো কয়েক জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে।

মামলার বিষয়ে ইতোমধ্যে তদন্ত কাজ শুরু হয়েছে বলেও জানান তিনি।

নিখোঁজের তিন দিন পর নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদী থেকে সোমবার (৭ নভেম্বর) রাতে ফারদিনের লাশ উদ্ধার করে নৌ পুলিশ।

লাশের ময়নাতদন্তের পর চিকিৎসকরা জানান তার শরীরে অসংখ্য আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে, তাকে হত্যা করা হয়েছে।

রাজধানীর রামপুরা থেকে নিখোঁজ হন পরশ। নিখোঁজের পর তার বাবা রামপুরা থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) অন্তর্ভুক্ত করেন।

নিহত ফারদিন নূর পরশ বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিবেটিং ক্লাবেরও যুগ্ম-সম্পাদক ছিলেন তিনি। তিন ভাইয়ের মধ্যে পরশ সবার বড়।

তাদের বাড়ি নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানার কুতুবপুর ইউনিয়নের নয়ামাটি এলাকায়। তবে গত দু’বছর যাবৎ তারা সপরিবারে রাজধানীর ডেমরা থানার শান্তিবাগ কোনাপাড়া এলাকার একটি বাড়িতে ভাড়ায় বসবাস করছেন।

বিডিসংবাদ/এএইচএস

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here