ব্রাজিলের নতুন কোচ হচ্ছেন সাও পাওলো বস ডোরিভাল

ব্রাজিল জাতীয় ফুটবল দলের নতুন কোচ হিসেবে নিয়োগ পেতে যাচ্ছেন সাও পাওলোর বস ডোরিভাল জুনিয়র। টানা কয়েক ম্যাচে পরাজয়ের জেড়ে ব্রাজিলিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (সিবিএফ) ফার্নান্দো দিনিজকে বরখাস্ত করার পর তার স্থলাভিষিক্ত হতে যাচ্ছেন ডোরিভাল।
সাও পাওলো তাদের টুইটার এ্যাকাউন্টে ২০২৩ কোপা ডো ব্রাজিল বিজয়ী কোচের এক বিবৃতি পোস্ট করেছে। সেখানে ডোরিভাল বলেছেন, ‘এর মাধ্যমে আমার ব্যক্তিগত স্বপ্ন পূরণ হতে যাচ্ছে।
যদিও সিবিএফ এর পক্ষ থেকে এ সম্পর্কে তাৎক্ষনিক কোন মন্তব্য জানা যায়নি।
৬১ বছর বয়সী ডোরিভালের অধীনে ফ্ল্যামেঙ্গো কোপা ডো ব্রাজিল ও কেপা লিবারেটডর্স, দুটি বড় শিরোপা জয় করেছে। এরপর তিনি সাও পাওলোতে যোগ দেন। সেখানেও নিজেকে সফল কোচ হিসেবে নিজেকে প্রমান করেছেন।
বিশ্ব ফুটবলের অন্যতম পরাশক্তি ব্রাজিলের একটি সঙ্কটময় মুহূর্তে ডোরিভাল দায়িত্ব গ্রহণ করতে যাচ্ছেন।
দিনিজের অধীনে ব্রাজিল বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে টানা তিনটি ম্যাচে পরাজিত হয়েছে। এর মধ্যে নভেম্বরে ঘরের মাঠে চির প্রতিদ্বন্দ্বি আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ১-০ গোলে পরাজিত হয়েছে। এই পরাজয় ছিল ঘরের মাঠে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ব্রাজিলের প্রথম পরাজয়।
একইসাথে ইনজুরি সমস্যাও ব্রাজিলকে দারুনভাবে ক্ষতিগ্রস্থ করেছে। অক্টোবরে উরুগুয়ের বিপক্ষে ২-০ গোলের পরাজয়ের ম্যাচটিতে হাঁটুর লিগামেন্টের গুরুতর ইনজুরিতে পড়েন নেইমার। তারপর থেকেই তিনি মাঠের বাইরে রয়েছেন। দক্ষিণ আমেরিকান বাছাইপর্বে ব্রাজিল বর্তমানে ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে।
গত জুলাইয়ে ৪৯ বছর বয়সী দিনিজকে জাতীয় দলের দায়িত্ব দেয়া হয়। ২০২৩ সালে কোপা লিবারটেডোর্স চ্যাম্পিয়ন ফ্লামিনেন্সের এ্যাটাকিং ফুটবলের কারনে ভক্তদের কাছে দারুন জনপ্রিয় ছিলেন দিনিজ। কিন্তু জাতীয় দলে তার প্রতিফলন দেখাতে পারেননি। যে কারনে ব্যপক সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে।
বলিভিয়ার বিপক্ষে ৫-১ গোলের জয় দিয়ে দিনিজের জাতীয় দলের যাত্রা শুরু হয়েছিল। পরের ম্যাচে পেরুকে ১-০ গোলে পরাজিত করে। কিন্তু ভেনেজুয়েলার সাথে ঘরের মাঠে গোলশুন্য ড্র করার পর থেকে তার কঠিন সময় শুরু হয়। এরপর থেকে বেশ কয়েকজন খেলোয়াড়ের ইনজুরি ব্রাজিলকে পিছিয়ে দিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছেন সুপারস্টার নেইমার। অক্টোবরে উরুগুয়ের বিপক্ষে ২-০ গোলের পরাজয়ের ম্যাচটিতে নেইমার হাঁটুর লিগামেন্টের ইনজুরিতে আক্রান্ত হন। পরের ম্যাচে কলম্বিয়ার কাছে ২-১ গোলে পরাজিত হবার মধ্য দিয়ে দিনিজের বিদায় ঘন্টা বাজতে থাকে। মারাকানা স্টেডিয়ামে লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনার কাছে পরাজয়ের মাধ্যমে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে প্রথমবারের মত ঘরের মাঠে পরাজয়ের তিক্ত অভিজ্ঞতা হয় ব্রাজিলের। ঐ পরাজয়ের পর স্বাগতিক সমর্থকদের দুয়ো ধ্বনি শুনতে হয়েছে।

বিডিসংবাদ/এএইচএস