ভারতে ‘অরেঞ্জ’ এলার্ট জারি

বিডিসংবাদ অনলাইন ডেস্কঃ

ভারতের উত্তরাঞ্চলের কয়েকটি এলাকায় মাঝারি শৈত্য প্রবাহ অব্যাহত রয়েছে। এদিকে দিল্লির সফদারগঞ্জে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে এক দশমিক নয় ডিগ্রি সেলসিয়াস। ভারতের আবহওয়ার বিভাগ (আইএমডি) আজ এ খবর জানিয়েছে।

আইএমডি’র উদ্ধৃতি দিয়ে খবরে বলা হয়েছে, দিল্লি আরেকটি এলাকা আয়া নগরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা দুই দশমিক ছয় ডিগ্রি সেলসিয়াস, লোদি রোডে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা দুই দশমিক আট ডিগ্রি সেলসিয়াস ও পালামে পাঁচ দশমিক দুই ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে।

ভারতের আবহাওয়া বিভাগ, ‘আজ ঘন কুয়াশা ও একটি শৈত্য প্রবাহের কারণে কয়েকটি এলাকায় বিশেষত কিছু বিচ্ছিন্ন স্থানে প্রচণ্ড ঠান্ডা পড়তে পারে’ জানিয়ে ‘অরেঞ্জ’ এলার্ট জারি করেছে।

প্রতিবেদনগুলোতে বলা হয়েছে, রোববার সকালে ভারী কুয়াশায় দিল্লি ও এর আশপাশের এলাকা ঢেকে গেছে এবং এ কারণে দৃশ্যমানতা হ্রাস পেয়েছে। কেন্দ্রীয় রাজধানী ও এর আশপাশের রাজ্যগুলোতে প্রচণ্ড ঠান্ডা পড়েছে ও ঘন কুয়াশায় আচ্ছন্ন হয়ে আছে।

কুয়াশার কারণে বেশ কয়েকটি ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে এবং ট্রেন চলাচল বন্ধ আছে। বিরূপ আবহাওয়া ও অন্যান্য কারণে ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুপুর ১টা পর্যন্ত প্রায় ২০টি ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে।

আবহাওয়া অফিস থেকে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার পর্যন্ত উত্তরাখণ্ড, উত্তর রাজস্থান, বিহার, সাব-হিমালয়ান পশ্চিমবঙ্গ এবং সিকিম, আসাম ও ত্রিপুরার কয়েকটি বিচ্ছিন্ন এলাকায় ভারী কুয়াশা অব্যহত থাকার সম্ভাবনা খুবই বেশি।

এতে আরো বলা হয়, ‘জানুয়ারির ৮ ও ৯ তারিখে উত্তর রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশের কিছু বিচ্ছিন্ন এলাকায় ভারী কুয়াশা পড়তে পারে।’

উত্তর রেলওয়ের এক মুখপাত্র বলেন, ভারী কুয়াশার কারণে ৪২টি ট্রেন এক ঘন্টা থেকে পাঁচ ঘণ্টা পর্যন্ত বিলম্বিত হয়েছে।

আবহাওয়া বিভাগ পূর্বাভাসে জানিয়েছে, সোমবার পর্যন্ত আগামী দুই দিন ভারতের উত্তরপশ্চিমাঞ্চলে শৈত্য প্রবাহ ও প্রচণ্ড ঠান্ডা অব্যহত থাকতে পারে।

সূত্র : বাসস

বিডিসংবাদ/এএইচএস