লিগ ওয়ান: কোলো মুয়ানির গোলে পিএসজির কষ্টার্জিত জয়

রানডাল কোলো মুয়ানির গোলে শনিবার লিগ ওয়ানে পিএসজি ২-১ ব্যবধানে নঁতেকে পরাজিত করেছে। আরেক ম্যাচে রেনেকে একই ব্যবধানে পরাজিত করে টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে মোনাকো।
ব্র্যাডলি বারকোলার দুর্দান্ত ফিনিশিংয়ে বিরতির ঠিক আগে এগিয়ে যায় পিএসজি। মোস্তফা মোহাম্মেদের হেডে ৫৫ মিনিটে সমতায় ফিরে নঁতে। ম্যাচ শেষের সাত মিনিট আগে ছয় গজ দুর থেকে কোলো মুয়ানি ঘরের মাঠ পার্ক ডি প্রিন্সেসে পিএসজিকে জয় উপহার দেন। এই জয়ে দ্বিতীয় স্থানে থাকা মোনাকোকে ৬ পয়েন্টে ব্যবধানে পিছনে ফেলে শীর্ষস্থান মজবুত করেছে প্যারিসের জায়ান্টরা।
ম্যাচ শেষে পিএসজি বস লুইস এনরিকে বলেছেন, ‘আমি মনে করি বুধবার বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের আগে আমরা আজ প্রথম মিনিট থেকেই নিজেদের এগিয়ে রেখেছিলাম। নঁতে ভালই প্রতিরোধ করেছে। এই ম্যাচের ফলাফল লিগে আমাদের পজিশনকে শক্তিশালী করেছে।’
প্যারিসে শুরু থেকেই স্বাগতিকদের প্রাধান্য ছিল। যদিও নঁতেও ছেড়ে কথা বলেনি। তাদের বেশ কয়েকটি প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়। ৪১ মিনিটে বারকোলা ডেডলক ভাঙ্গেন। পিএসজির হয়ে এটি বারকোলার প্রথম গোল। ভিটিনহার সাথে লেফট উইংয়ে বল আদান প্রদান করে ২১ বছর বয়সী ফরাসি এ্যাটাকার বারকোলা নঁতের গোলরক্ষক আলবান লাফোন্তেতে পরাস্ত করেন। কিন্তু বিরতির ১০ মিনিটের মধ্যে ম্যাচে ফিরে আসে নঁতে। ফ্লোরেন্ট মোলেটের কর্ণার থেকে পোস্টের খুব কাছে থেকে মোহাম্মদ গোল করে সফরকারীদের সমতায় ফেরান। ৬১ মিনিটে টিনএজার ওয়ারেন জাইরে-এমেরি যখন মাঠে নামেন তখন পিএসজি আত্মবিশ^াস ফিরে পায়। ঐ একই সময় অধিনায়ক মারকুইনহোস বদলী বেঞ্চে চলে যান। কিন্তু ম্যাচ শেষে ১১ মিনিট আগে গোলদাতা বারকোলার স্থানে কোলো মুয়ানি নামার পর ম্যাচের চেহারা আমুল পাল্টে যায়। চার মিনিট পরই ফরাসি মিডফিল্ডার কোলো মুয়ানি পোস্টের খুব কাছে থেকে মৌসুমের চতুর্থ গোল করে পিএসজির জয় নিশ্চিত করেন।
লুইস এনরিকে বলেছেন চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচকে সামনে রেখে এই ম্যাচের মাধ্যমে প্রস্তুতিটা ভালই হয়েছে। ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে আগামী সপ্তাহে বাঁচা-মরার লড়াইয়ে মাঠে নামতে যাচ্ছে পিএসজি। নক আউট পর্বে যেতে হলে এই ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই।
রোহাজো পার্কে দ্বিতীয়ার্ধে ভেন্ডারসন ও ইউসুফা ফোফানার গোলে মোনাকোর ২-১ গোলের জয় নিশ্চিত হয়। এই হয়ে নিসকে হঠিয়ে লিগ টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে মোনাকো। বেঞ্জামিন বোরিগেয়াডের শেষ মুহূর্তের পেনাল্টি ও ৭৪ মিনিটে ভেন্ডারসনের লাল কার্ড সত্তেও মোনাকো জয়বঞ্চিত হয়নি। এই জয়ে শীর্ষে থাকা পিএসজির তুলনায় মোনাকো এখন তিন পয়েন্ট পিছিয়ে রয়েছে।
তৃতীয় স্থানে থেকে সপ্তাহ শুরু করেছিল মোনকো। কিন্তু টানা দুই ম্যাচে জয় তাদের অবস্থানের উন্নতি করেছে। প্রথমার্ধে গোলশুন্য থাকার পর ম্যাচ ধারণা করা হচ্ছিল আগের ম্যাচে মন্টিপিলিয়ার ও লেন্সের মতই ম্যাচটি গোলশুন্য ড্রয়ের দিকেই যাচ্ছে। বিরতির ৬ মিনিট পর ফ্লোরিয়ান বালোগানের এ্যাসিস্টে ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার ভেন্ডারসন মোনাকোকে এগিয়ে দেন। তিন মিনিট পর আমিনে গুরিকে ফাউলের অপরাধে হলুদ কার্ড পান ভেন্ডারসন। ম্যাচ শেষে ১৫ মিনিট আগে মোহাম্মাদু নাগিদাকে ফাউলের অপরাধে দি¦তীয় হলুদ কার্ড তিনি মাঠ ত্যাগে বাধ্য হন। একজন কম নিয়ে খেলেও ৮৫ মিনিটে ফোফানার গোলে ব্যবধান দ্বিগুন করে মোনাকো। ম্যাচে এটি ছিল বালোগানের দ্বিতীয় এ্যাসিস্ট। ৯০ মিনিটে পেনাল্টি থেকে বোরিগেয়াডের গোলে সান্তনার এক গোল পরিশোধ করতে পেরেছে রেনে।
বিডিসংবাদ/এএইচএস