শেষ ষোলতে ইংল্যান্ডের প্রতিপক্ষ আজ সেনেগাল

বিডিসংবাদ অনলাইন ডেস্কঃ

কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করতে আজ মাঠে নামছে বি গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড ও এ গ্রুপ থেকে দ্বিতীয় হয়ে নক আউটে ওঠা দল সেনেগাল। আল-খোরের আল-বাইত স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড ও সেনেগাল।

বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় শুরু হবে ম্যাচটি। বিশ্বকাপের ইতিহাসে এবারই প্রথম মুখোমুখি হবে দল দুটি।

‘বি’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হয়েই শেষ ষোলোর টিকিট নিশ্চিত করেছে ইংল্যান্ড। এবারের বিশ্বকাপে এখনো একটি ম্যাচও হারেনি তারা। গ্রুপ পর্বে এখনো যে পাঁচটি দেশ হারের স্বাদ পায়নি, তার একটি ইংলিশরা। ইরানের বিপক্ষে ৬-২ গোলে জিতে উড়ন্ত সূচনা করেছে ইংল্যান্ড। যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করলেও শেষ ম্যাচে ওয়েলসের বিপক্ষে ৩-০ গোলে জয় পায় দলটি। ৩ ম্যাচে তারা গোল করেছে ৯টি ও গোল খেয়েছে দুটি।

১৯৬৬ বিশ্বকাপে প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছিল ইংল্যান্ড। এরপর দীর্ঘ ৫৬ বছর ধরে চলছে দেশটির শিরোপাখরা। ইংল্যান্ডের বর্তমান কোচ গ্যারেথ সাউথগেটের নেতৃত্বে রাশিয়া বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল এবং ইউরোতে ফাইনাল খেলেছে ইংল্যান্ড। দু’বারই শিরোপার খুব কাছে গিয়েও স্বপ্নভঙ্গ হয় তাদের। এবারেও বিশ্বকাপেও তাদের ওপর অনেকেই বাজি ধরছেন। নতুন কোনো ইনজুরি না থাকায় ফুল ফিট স্কোয়াড পাচ্ছেন সাউথগেট। এখনো পর্যন্ত গোলের খাতা খুলতে না পারা হ্যারি কেইনের কাছে আজ প্রত্যাশা থাকবে একটি স্মরণীয় পারফরম্যান্সের।

অন্যদিকে, এই গ্রুপে দ্বিতীয় হয়ে নক আউট নিশ্চিত করেছে সেনেগাল। নেদারল্যান্ডসের সাথে ২-০ গোলে হারলেও কাতার ও ইকুয়েডরকে হারিয়েছে তারা। তিন ম্যাচে তারা গোল করেছে পাঁচটি ও গোল খেয়েছে চারটি।

এবারে নিজেদের ফুটবল ইতিহাসে দ্বিতীয়বারের মতো নকআউট পর্বে উঠেছে সেনেগাল। এর আগে দলটি শেষ ষোলোয় খেলেছিল ২০ বছর আগে, ২০০২ আসরে। সেবার দলটির অধিনায়ক ছিলেন আলিয়ু সিসে। তিনিই আবার সেনেগালের বর্তমান কোচ। গ্যারেথ সাউথগেট যখন ইংল্যান্ডের দায়িত্ব নেন, প্রায় একই সময় সেনেগালের দায়িত্ব নিয়েছিলেন আলিয়ু সিসে। তারই কোচিংয়ে প্রথমবারের মত আফ্রিকা কাপ অফ নেশন্স জিতেছে সেনেগাল। সিসে নিশ্চয়ই চাইবেন, খেলোয়াড়ি জীবনের কীর্তি কোচ হিসেবেও পুনরাবৃত্তি করার।

বিশ্বকাপের ঠিক আগে আগে ইনজুরির জন্য দল থেকে ছিটকে যান সেনেগালের সবচেয়ে ভরসাযোগ্য খেলোয়াড় সাদিও মানে। সাদিও মানেকে ছাড়া সেনেগাল আদৌ গ্রুপ পর্বের গণ্ডি পেরোতে পারবে কিনা, তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছিলেন সকলেই। কিন্তু সবাইকে ভুল প্রমাণ করে দিয়ে, বেপরোয়া, ভয়ডরহীন ফুটবল খেলে শেষ ষোলতে জায়গা করে নিয়েছে আলিয়ু সিসের শিষ্যরা। সাদিও মানের অভাব এখনো পর্যন্ত অনুভূতই হয়নি কোনো খেলায়।

তবে সেনেগালের কোচ আলিয়ু সিসে বেশ অসুস্থ। তার ওপর আজ ইদ্রিসা গুইয়ে ও কোয়াতেকে পাচ্ছে না সেনেগাল। কোনোকিছুই অবশ্য সেনেগালের মনে চিড় ধরাতে পারেনি একটুও। তাই আজ প্রথম দেখায় দু’দলেরই চেষ্টা থাকবে ম্যাচ জিতে নিজেদের প্রথম দেখাকে স্মরণীয় করে রাখার সুযোগ।

বিডিসংবাদ/এএইচএস