হতাশ রোহিত ব্যাটিং ব্যর্থতাকে দুষলেন

সিরিজের প্রথম টেস্টে তিনদিনেই দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ইনিংস ও ৩২ রানে হেরেছে সফরকারী ভারত। দলের এমন হারে হতাশ ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মা। সেঞ্চুরিয়নে গতরাতে ম্যাচ শেষে রোহিত বলেন, ব্যাটারদের ব্যর্থতায় ম্যাচটি হারতে হয়েছে দলকে।
বক্সিং ডে টেস্টে টস হেরে প্রথম ইনিংসে লোকেশ রাহুলের লড়াকু সেঞ্চুরি পরও ২৪৫ রানে অলআউট হয় ভারত। ১৩৭ বলে ১০১ রান করেন রাহুল। এরপর নিজেদের প্রথম ইনিংসে ডিন এলগারের সেঞ্চুরিতে ৪০৮ রানের বড় সংগ্রহ পায় দক্ষিণ আফ্রিকা। বিদায়ী টেস্ট সিরিজ খেলতে নামা এলগার ২৮টি চারে ২৮৭ বলে ১৮৫ রান করেন।
এলগারের দুর্দান্ত ইনিংসের সুবাদে প্রথম ইনিংসে ১৬৩ রানের লিড পায় দক্ষিণ আফ্রিকা। পিছিয়ে থেকে তৃতীয় দিন দ্বিতীয় ইনিংসে খেলতে নেমে ১৩১ রানে গুটিয়ে যায় ভারত। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭৬ রান করেন বিরাট কোহলি। শুভমান গিলের ব্যাট থেকে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৬ রান আসে। এছাড়া ভারতের আর কোন ব্যাটারই দুই অংকে পা রাখতে পারেনি।
ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার দুই পেসার কাগিসো রাবাদা ও নান্দ্রে বার্গার ৭টি করে উইকেট নেন। প্রোটিয়া বোলারদের সামলাতে হিমশিম খেতে হয়েছে বিশ^সেরা ভারতের ব্যাটিং লাইনআপকে। এমন টন্জয়ের জন্য ব্যাটারদের দায়ী করে রাহিত বলেন, ‘এই মাঠে বাউন্ডারি মারা সহজ। আমরা দেখেছি, তাদের ব্যাটারেরা কতটা সহজে রান করেছে। প্রতিপক্ষের শক্তি-দুর্বলতা সর্ম্পকে জানতে হবে। আমরা দুই ইনিংসেই খারাপ ব্যাটিং করেছি। সেই কারণেই আমাদের এত বাজেভাবে হারতে হয়েছে।’
বিদায়ী সিরিজের প্রথম টেস্টে ১৮৫ রানের ইনিংস খেলে ম্যাচ সেরা হন এলগার। দলের বোলারদের প্রশংসা করেছেন তিনি, ‘আমাদের বোলাররাও দারুণ পারফর্ম করেছে। রাবাদা-বার্গার খুবই ভালো বল করেছে। ভারতের মত বিশ^সেরা ব্যাটিং লাইন আপকে ধ্বসিয়ে দিয়েছে তারা। তবে পরের টেস্টে ঘুড়ে দাঁড়াতে মুখিয়ে থাকবে ভারত। এজন্য আমাদের সতর্ক ধাকতে হবে।’
আগামী বছরের ৩ জানুয়ারি থেকে কেপ টাউনে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট খেলতে নামবে ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকা।

বিডিসংবাদ/এএইচএস