১৯৭১ সালে ‘বিউটি’ সিনেমা হলে তারকার হাট

আহমেদ তেপান্তর


সালটা ১৯৭১। ৭০ সালের নির্বাচন উত্তর ব্যাপক উত্তেজনা চারদিকে। নির্বাচনে জয়ী আওয়ামী লীগের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরে পশ্চিমাদের গড়িমসি। বিভিন্ন সেক্টরে তার প্রভাব পড়তে শুরু করেছে। তার মধ্যেও চলচ্চিত্রাঙ্গনে পূর্ব-পশ্চিমাদের মধ্যে উষ্ণতা লক্ষ্য করা যায়। আর এর মধ্যমণি ছিলেন স্বাধীনতাপূর্ব মিরপুর গাবতলীর অধুনালুপ্ত বিউটি সিনেমা হলের কর্ণধার এস এ খালেকের বিউটি ফিল্মস ইন্টারন্যাশনাল এই আয়োজন করে। এমন একটি দুর্লভ একটি ছবি পোস্ট করেছেন সালাউদ্দিন দুলক ঢাকা মুভিজ পেজে।


পোস্টে জানানো হয় ওই আয়োজনটি ছিলো ১৯৭১ সালের ৩১ জানুয়ারির নৈশভোজের। আমন্ত্রিত অতিথিদের জন্য ওই রাতে ব্যাটল জায়ান্টস সিনেমাটি দেখানো হয়। কালের বিবর্তনে সিনেমা হলটি এখন আর নাই। ওইখানে এখন বাসস্ট্যান্ড, মসজিদ এবং একটি বিশ^বিদ্যালয় গড়ে উঠেছে।


পোস্টেও ছবিতে দেখা যায় তখনকার তারকা অভিনেতা রহমান তার স্ত্রী নিয়ে নৈশভোজে উপস্থিত হন। এছাড়া কবরী, সুলতানা জামান, গোলাম মুস্তাফা, সুমিতা দেবী, জাফর, ওমর চিস্তি, আশীষ কুমার, ঢাকা নারায়ণগঞ্জের সমন্ত হল মালিকরা ওই নৈশভোজে একত্রিত হন। ছবিতে সবচেয়ে লম্বা মানুষটি টেলিভিশন প্রেজন্টোর তারিক আজিজ। তাদের সঙ্গে দিলজিৎ মির্জা, পরিবেশক আই মুসানি এবং তারকা অভিনেত্রী ন্যায়নাকে নিয়ে উপস্থিত ছিলেন গরাজ বাবু।


ছবিতে থাকা প্রায় সকলেই না ফেরার দেশে চলে গেছেন। এদের মধ্যে সাবেক সংসদ সদস্য এস এ খালেক বার্ধ্যক্যজনিত কারণে বাসাতেই চিকিৎসাধীন।