৭২ যাত্রীর মধ্যে ছিলেন ৫ ভারতীয়সহ ১৫ বিদেশী

বিডিসংবাদ অনলাইন ডেস্কঃ

নেপালের পোখরায় বিধ্বস্ত হওয়া বিমানে পাঁচ ভারতীয়সহ ১৫ বিদেশী নাগরিক ছিলেন বলে জানিয়েছেন দেশটির সংবাদমাধ্যম। আর বিমানটিতে মোট ৭২ আরোহী ছিলেন।

রোববার দেশটির সংবাদমাধ্যম দ্যা হিমালায়ন এ তথ্য জানিয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, বিধ্বস্ত এএনসি এটিআর-৭২ সিরিজের বিমানে ১৫ বিদেশী নাগরিক ছিলেন। আশঙ্কা করা হচ্ছে তারা সবাই মারা গেছেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিমানের ৭২ আরোহীর মধ্যে চার ক্রুসহ ৫৭ জন নেপালি, পাঁচজন ভারতীয়, চারজন রাশিয়ান, দু‘জন কোরিয়ান, এবং একজন করে অস্ট্রেলিয়া, আয়ারল্যান্ড, আর্জেন্টিনা ও ফ্যান্সের নাগরিক ছিলেন।

জানা গেছে, বিমানটি পোখরার সেটি গোর্জ এলাকায় বিধ্বস্ত হয়েছে। যেটি স্থানীয় বিমান বন্দর থেকে মাত্র ২ কিলোমিটার দূরে।

উদ্ধারকারী বাহিনী ও নিরাপত্তা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এখনো পর্যন্ত দুর্ঘটনাস্থল থেকে ৩০ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

এদিকে রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশটির বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বিমান দুর্ঘটনায় অন্তত ৪০ জন নিহত হয়েছেন। এটি দেশের পাঁচ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ দুর্ঘটনা।

বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের মুখপাত্র জগন্নাথ নিরলা বলেন, দুর্ঘটনার আশেপাশে পাহাড়ী এলাকায় শতাধিক উদ্ধারকর্মী কাজ করছেন। দুর্ঘটনার সময় আবহাওয়া পরিষ্কার ছিল।এটি কাঠমুন্ডু থেকে ৭২ আরোহী নিয়ে যাত্রা করেছিল।

বিমান বিধ্বস্তের পরপরই নেপালের সেনাবাহিনী উদ্ধার অভিযান শুরু করেছে।

‘আরো লাশ পাওয়া যাবে বলে আমরা আশঙ্কা করছি। বিমানটি টুকরো টুকরো হয়ে গেছে,’ সেনাবাহিনীর একজন মুখপাত্র রয়টার্সকে বলেছেন।

এই ঘটনার পর মন্ত্রিপরিষদের জরুরি বৈঠক ডেকেছেন প্রধানমন্ত্রী পুষ্প কমল দহল। দেশের এজেন্সিগুলোকে উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়ার জন্য তিনি নির্দেশ দিয়েছেন।

নেপালের ইতিহাসে এটিআর-৭২ সিরিজের বিমান দুর্ঘটনা এটিই প্রথম।

বিডিসংবাদ/এএইচএস

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here