বাংলাদেশ মেডিকেলের ধর্মঘট প্রত্যাহারের নির্দেশ হাইকোর্টের

বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ধর্মঘট ছয় ঘণ্টার মধ্যে প্রত্যাহারের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে রোগীদের জিম্মি করে ধর্মঘট ডাকা কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করা হয়েছে।

বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ধর্মঘট ছয় ঘণ্টার মধ্যে প্রত্যাহারের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে রোগীদের জিম্মি করে ধর্মঘট ডাকা কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করা হয়েছে।

আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে স্বাস্থ্যসচিব ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

ধর্মঘট স্থগিত চেয়ে করা এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি শেষে আজ মঙ্গলবার বিকালে বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহর সমন্বয়ে হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

এই প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক নিয়াজ আহমেদ চৌধুরী সোমবার হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন। সেই রিট আবেদনের শুনানি শেষে আদালত আজ  আদেশ দেন।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ। তিনি বলেন, ‘একজন চিকিৎসককে ধানমণ্ডির এই হাসপাতাল থেকে উত্তরায় বদলি করার পরিপ্রেক্ষিতে সহকর্মীরা গত ১৪ মার্চ থেকে এই ধর্মঘট আহ্বান করেছেন। চিকিৎসক বদলির বিষয়ে তদন্তের জন্য সরকার ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে একটি তদন্ত কমিটি করতে বলেছেন আদালত। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে তদন্ত কমিটিকে এ বিষয়ে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।’

ইউনুছ আলী আকন্দ আরো বলেন, বাংলাদেশ মেডিকেল এক হাজার শয্যাবিশিষ্ট একটি হাসপাতাল। এখানে প্রতিদিন বিপুলসংখ্যক রোগী আসে। কিন্তু ধর্মঘটের কারণে সেসব রোগী কোনো চিকিৎসা পাচ্ছেন না। এমনকি জরুরি বিভাগেও কোনো চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে না। কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা ছাড়া অধ্যক্ষের নেতৃত্বে এই ধর্মঘট চলছে। এতে রোগীদের চরম ভোগান্তি তৈরি হচ্ছে, যা আইন ও নৈতিকতাবিরোধী।