ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসী বিভাগের নবীন বরণ এবং প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান

ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসী বিভাগের নবীন বরণ এবং প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান
ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনির্ভাসিটির ফার্মেসী বিভাগের শিক্ষার্থীদের জন্য আয়োজিত "ফ্রেশার'স রিসিপশন অ্যান্ড ফেয়ারওয়েল -২০২২" অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি সিনোভিয়া ফার্মা পিএলসি-এর চিফ অপারেটিং অফিসার মোঃ মুঈন উদ্দিন মজুমদার এর সাথে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ।

বিডিসংবাদ ডেস্কঃ

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে ফার্মেসী বিভাগের ফল ২০২২ সেমিস্টারের নবীন শিক্ষার্থাদের বরন এবং প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের জন্য অভিনন্দন জানাতে ড্যাফোডিল স্মার্ট সিটিতে আজ ০২ আগস্ট ২০২২ ফার্মাসিয়া ক্লাবের সহযোগিতায় “ফ্রেশার’স রিসিপশন অ্যান্ড ফেয়ারওয়েল -২০২২” নামে একটি আনন্দঘন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা গয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিনোভিয়া ফার্মা পিএলসি-এর চিফ অপারেটিং অফিসার মোঃ মুঈন উদ্দিন মজুমদার।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এম. লুৎফর রহমান, উপ- উপাচার্য প্রফেসর ড. এস.এম. মাহবুব উল হক মজুমদার সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। ফ্যাকাল্টি অব অ্যালাইড হেলথ সায়েন্সস অনুষদের ডীন প্রফেসর ডঃ মোঃ বেলাল হোসেন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র বিষয়ক পরিচালক ড. সৈয়দ মিজানুর রহমান রাজু এবং ফার্মেসী বিভাগের সহযোগী প্রধান ডাঃ শরিফা সুলতানা

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোঃ মুঈন উদ্দিন মজুমদার বলেন, বাংলাদেশে প্রচুর পরিমাণে দক্ষত্যাসম্পন্ন ফার্মাসিস্ট দরকার এবং ফার্মাসিউটিক্যাল সেক্টরে নিজের ক্যারিয়ার তৈরি করার যথেষ্ট সুযোগ রয়েছে। বর্তমানে ফার্মাসিস্টরা ঔষধ বন্টন ব্যবস্থা, গবেষনা, নিয়ন্ত্রন, উৎপাদন এবং মান নিয়ন্ত্রন কাজে বিশেষ ভূমিকা পালন করছে। তিনি আরো বলেন ফার্মাসিস্ট ছাড়া কোন স্বাস্থ্য ব্যবস্থা সঠিক ভাবে চলতে পারে না।

উপাচার্য প্রফেসর ড. এম লুৎফর রহমান বলেন, প্রতিশ্রুতি, স্বচ্ছতা ও গুনগত শিক্ষার মানই ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিকে সবার মাঝে সুপরিচিত করে তুলেছে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সর্বদাই শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া ও দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য প্রয়োজনীয় সুবিধাদি সরবরাহ ও নিশ্চয়তা প্রদানে বদ্ধপরিকর। তাইতো একুশ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় শিক্ষার্থীদের সময়ের চাহিদা মেটাতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ‘একজন শিক্ষার্থী ঃ একটি কম্পিউটার’ কর্মসূচীর ন্যায় সাহসী পদক্ষেপ গ্রহন করেছে।

প্রফেসর ড. লুৎফর রহমান নবীন শিক্ষার্থীদের ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বাগত জানিয়ে আরো বলেন, নিয়মানুবর্তীতা, সততা এবং গুনগত মান এই তিনটি প্রধান বিষয় একজন মানুষকে পরিপূর্ণ এবং সফল মানুষ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করে । তিনি শিক্ষার্থীদের এ তিনটি গুন অর্জনের পরামর্শ দেন এবং শিক্ষার্থীদের শিক্ষা জীবনের সাফল্য কামনা করেন।