জার্মানিতে ৫৪টি স্থানে অভিযান, ১৬ সন্দেহভাজন জঙ্গি গ্রেফতার

জঙ্গি তৎপরতায় জড়িত ব্যক্তিদের আটকের উদ্দেশ্যে হেসে রাজ্যের ৫৪টি স্থানে অভিযান চালায় পুলিশ৷ অভিযানে ১৬ জন সন্দেহভাজনকে গ্রেপ্তার করা হয়৷ মূল সন্দেহভাজন এক টিউনিশীয়, যে অন্তত ২ বছর ধরে জঙ্গি তৎপরতায় জড়িত বলে সন্দেহ৷

মঙ্গরবার, অর্থাৎ গতকালই বার্লিনে তিন ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ৷ ওই তিন ব্যক্তি তথাকথিত জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট বা আইএস-এর ঘনিষ্ঠ এবং শিগগিরই তারা প্রশিক্ষণের জন্য মধ্যপ্রাচ্যে যবার পরিকল্পনা করছিল বলে গোপন সূত্রে খবর পেয়েই পুলিশ তাদের আটক করে৷

ওই তিনজনকে গ্রেপ্তারের একদিন পরই হেসে রাজ্যের ৫৪টি স্থানে অভিযান চালায় প্রায় ১১০০ পুলিশ৷ ৫৪টি স্থানের মধ্যে অ্যাপার্টমেন্ট, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এবং মসজিদও ছিল৷

আকস্মিক এ অভিযানে যে ১৬ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়, তাদের প্রত্যেকেই আইএস-এর সদস্য বলে সন্দেহ করা হচ্ছে৷ এ বিষয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে৷ তদন্ত শেষেই বলা যাবে, সত্যিই তারা আইএস-এর সদস্য কিনা৷

তবে ১৬ জনের মধ্যে একজনের বিষয়ে পুলিশ অনেকটাই নিশ্চিত৷ ৩৬ বছর বয়সি এই টিউনিশীয় ২০১৫ সাল থেকে পুলিশের সন্দেহের আওতায় রয়েছেন৷ দু’ বছরেরও বেশি সময় ধরে তিনি আইএস-এর জন্য কর্মী সংগ্রহ করছিলেন এবং সম্প্রতি তিনি একটি সন্ত্রাসী হামলার পরিকল্পনা করছিলেন বলেও পুলিশের সন্দেহ৷

তবে হেসে রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পেটার বয়েথ বলেছেন, অত্যাসন্ন কোনো বিপদ প্রতিহত করার জন্য এ অভিযান পরিচালিত হয়নি৷ অভিযানের মূল উদ্দেশ্য ছিল জননিরাপত্তা নিশ্চিত করা৷

প্রসঙ্গত, গত ১৯ ডিসেম্বর বার্লিনের ক্রিসমাস মার্কেটে এক ট্রাক হামলায় ১২ জন নিহত হয়৷ হামলাকারী আনিস আমরিও ছিলেন টিউনিশীয়৷

এসিবি/ডিজি (এপি, এএফপি, রয়টার্স)