কচুয়ায় জমি দখলকে কেন্দ্র করে সংখ্যালঘু পরিবারের উপর হামলা

বিডিসংবাদ অনলাইন ডেস্কঃ   অবৈধ ভাবে জমি দখলকে কেন্দ্র করে তাতে বাঁধা দেওয়ায় কচুয়া উপজেলায় সংখ্যালঘু পরিবারের উপর হামলা করার ঘটনা ঘটেছে।

তথ্য সূত্রে জানা যায়, কচুয়া উপজেলার গোহট (দঃ) ইউনিয়নের গোহট গ্রামের আওয়ামীলীগ কর্মী সালাম ওরফে লম্বু সালাম ও তার ভাতিজা সোহাগ ওরফে ছেনি সোহাগ গং তাদের পাশ্ববর্তী দাস বাড়ীর মালিকানাধীন জমির উপর দিয়ে বিদ্যুৎতের খুঁটি স্থাপনের অজুহাতে সে জমি দখলের অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলো।

মৌখিক ভাবে নিষেধ করার পর এ নিয়ে বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শাহরিয়ার শাহিনের উপর সমাধানের ভার অর্পিত হয়। এ অবস্থায় চেয়ারম্যানের কোন সমাধান ছাড়াই ২০ মে রবিবার উক্ত জমির উপর বিদ্যুৎতের খুঁটি স্থাপনের চেষ্টা করলে দাস বাড়ীর বিনোদ বিহারীর পুত্র বিমল দাশ (৪৭),শ্যামল(৪১),গৌতম দাশ (৩১) এতে বাঁধা প্রদান করে। এবং কাজ বন্ধ রাখার অনুরোধ করে।

কিন্তু গোহট গ্রামের আব্দুস সালাম ও সোহাগ ও বাঁধা উপেক্ষা করে তাদের উপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায়,যার ফলে তাঁরা মারাত্মক ভাবে আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে কচুয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।তাদের মধ্যে শ্যামল দাসের অবস্থা গুরুতর,তার মাথায় মারাত্মক জখম হওয়ায় সেখানে ৯টি সেলাই দেয়া হয়েছে।

বলা যায় যে,বিবাদী সালাম ওরফে লম্বু সালাম এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যাবসায়ী ও ভূমি খেকো দলের সক্রিয় সদস্য।তার রাজনৈতিক প্রশ্রয়ে এলাকার কিছু প্রভাবশালী নেতার হাত রয়েছে।

এ ব্যাপারে কচুয়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন “বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট”এবং দোষীদের দৃষ্টান্ত মৃলক শাস্তির দাবি করছেন ।

সূত্রঃ কচুয়ার ডাক