পাকিস্তান আর্মিতে সুযোগ চান স্যামুয়েলস!

পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) ফাইনাল ম্যাচে নিরাপত্তার ‘প্রসংশাপত্র’ দিয় ফেললেন ক্যারিবিয়ান তারকা ব্যাটসম্যান মারলন স্যামুয়েলস। বিশেষ করে পাকিস্তানের লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ফাইনালে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর তৎপরতায় দারুণ সন্তুষ্ট স্যামুয়েলস।

পিএসএল ফাইনাল শেষে বিজয়ী দল পেশোয়ার জালমির বিদেশি ক্রিকেটারদের সাথে দেখা করে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন পাকিস্তানের সেনা প্রধান জাবেদ বাজওয়া। বিজয়ী দলের ক্রিকেটার হিসেবে সেখানে ছিলেন স্যামুয়েলসও। সাক্ষাত অনুষ্ঠান শেষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে একটি ভিডিও বার্তা প্রকাশ করেছেন এই ক্যারিবিয়ান। আর সেখানেই পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে যোগ দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন তিনি।

তিন মিনিটের এই ভিডিও বার্তায় স্যামুয়েলস বলেছেন, আমি পাকিস্তান আর্মিকে ধন্যবাদ দিতে চাই, তারা যেভাবে আমাদের নিরাপত্তা দিয়েছেন, এর থেকে বেশি কিছু আমরা চাইতে পারতাম না। আমি আবারও পাকিস্তানে আসতে তাই, সেনাদের ওই তামার ব্যাচটা আমার কাঁধে পরার জন্য। যদি কখনো পাকিস্তান আর্মির অংশ হওয়ার সুযোগ পাই, আমি লুফে নেব। অপেক্ষা করছি, আমি তাদের অংশ হতে চাই।

পাকিস্তানে ক্রিকেট ফিরিয়ে আনা প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, আইসিসির উচিত পাকিস্তানে ক্রিকেট ফিরিয়ে দেওয়া। কারণ সেখানে অনেকেই এটার জন্য অপেক্ষা করছে। তারা খেলাটা সামনে বসে দেখতেই বেশি পছন্দ করে।

স্যামুয়েলসের এই বক্তব্যের জন্য তাকে ধন্যবাদ দিয়েছে পেশোয়ার জালমির মালিক জাভেদ আফ্রিদি।

উল্লেখ্য, ২০০৯ সালে এই গাদ্দাফি স্টেডিয়ামের সামনেই শ্রীলঙ্কা জাতীয় ক্রিকেট দলের সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে।এরপর থেকে পাকিস্তানের মাটিকে এক প্রকার অভিশপ্তই করে রেখেছে ক্রিকেট খেলুড়ে দেশগুলো। ২০১৫ সালে জিম্বাবুয়ে এই অভিশাপ কিছুটা মুছে দিলেও আর কোন দল ওমুখো হয়নি। তবে পিএসএল ফাইনাল আবারও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে পাকিস্তান মুখো করবে বলেই আশা করছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। বিশেষ করে স্যমুয়েলসের প্রশংসাপত্র সে দাবিকে জোড়াল করল। এনডিটিভি।