কোহলি না, সেরা শচিন : ইউসুফ

বর্তমানে ভারতীয় অধিনায়ক হিসেবে দুর্দান্ত ফর্মে থাকলেও বিরাট কোহলির তুলনায় ভালো খেলোয়াড় হিসেবে কিংবদন্তী ব্যাটসম্যান শচিন টেন্ডুলকারকেই এগিয়ে রেখেছেন সাবেক পাকিস্তানী ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ ইউসুফ।

ইউসুফ বলেন, ‘আমি কোহলির থেকে কোন কিছু নিতে চাই না। তার মধ্যে অন্য ধরনের প্রতিভা রয়েছে, যা সত্যিই বিরল। কিন্তু আমি সবদিক থেকেই টেন্ডুলকারকে এগিয়ে রাখবো। কারণ টেন্ডুলকার যে সময় খেলেছেন তখন তার প্রতিপক্ষ ছিল বিশ্বের সেরা সব স্পিনার ও পেসাররা। এখনকার দিনের খেলোয়াড়দের গুণগত মানের সাথে ৯০’র দশক কিংবা ২০১১ সাল পর্যন্ত খেলোয়াড়দের মিল খুঁজে পাওয়া যাবে না। ২০১১ সালের বিশ্বকাপে পরে খেলোয়াড়দের গুণগত মানের ঘাটতি দেখা গেছে। টেন্ডুলকার একজন বিশ্বমানের খেলোয়াড়। বিশ্বের শক্ত প্রতিপক্ষের বিপক্ষে সব ধরনের কন্ডিশনে সব ধরনের ফর্মেটে তার রান ও সেঞ্চুরির সংখ্যা বিবেচনা করলেই সব প্রমাণিত হবে। আমি টেন্ডুলকারের বিপক্ষে অনেক খেলেছি। অনেকবারই সে ম্যাচজয়ী ইনিংস খেলেছে। আমার মনে হয় না সে একই মানের বোলারদের মোকাবেলা কোহলি করেছে।

৪২ বছর বয়সী ইউসুফের ৯০ টেস্টে গড় ছিল ৫২.২৯ ও ২৮৮টি ওয়ানডেতে ৪১.৭১। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পাকিস্তানের ৩-০তে টেস্ট সিরিজ পরাজয়ের সমালোচনা করে ইউসুফ বলেন, আমার দেখা মতে এত দুর্বল অস্ট্রেলিয়ান টেস্ট দল আর গঠিত হয়নি। শেষ দুটি টেস্ট সহজেই ড্র হতে পারতো। কিন্তু আমাদের ব্যাটিং অর্ডার হঠাৎ করেই দারুণভাবে ভেঙ্গে পড়ে। অথচ দুই টেস্টে উইকেট ব্যাটিং সহায়ক ছিল। নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার পাঁচটি টেস্টেই ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় দলের পরাজয় নিশ্চিত হয়েছে।

ইউসুফ আরো মনে করেন, টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে মিসবাহ-উল-হকের এখন সরে দাঁড়ানোর সময় এসেছে। টেস্ট ও ওয়ানডেতে এখন নতুন মাইন্ডসেট দরকার। মিসবাহ ইতোমধ্যেই তার ক্যারিয়ার অনেক বেশী দীর্ঘায়িত করে ফেলেছে।